• 20 Jun, 2024

শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার নড়াইলের ভিত্তিপ্রস্তর ফলক উন্মোচন

শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার নড়াইলের ভিত্তিপ্রস্তর ফলক উন্মোচন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নড়াইলে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তরের স্থাপন ও স্মার্ট নারী উদ্যোক্তাদের মাঝে চেক বিতরণ করা হয়েছে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক এমপি এবং কিংবদন্তি ক্রিকেটার নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা উপস্থিত থেকে যৌথভাবে ফলক উন্মোচন করেন।

শুক্রবার (২৩ জুন) বিকাল ৪টায় সদরের আউড়িয়া ইউনিয়নের সীমাখালী মৌজায় এ আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের ফলক উন্মোচন করা হয়।

এ সময় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার বাস্তবায়িত হলে নড়াইল জেলার ন্যূনতম এসএসসি /সমমান পর্যায়ের ছাত্র-ছাত্রীদের আইটি/আইটিইএস এ দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তোলা হবে, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে উদ্যোক্তা তৈরি করা হবে এবং আইটি/আইটিইএস সেক্টরে যুবসমাজের আত্ম-কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। যা টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনের পাশাপাশি আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন করে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে সহায়তা করবে ও আমাদের তরুণ প্রজন্মকে বিশ্বমানের করে গড়ে তুলবে।  

ফলক উন্মোচন অনুষ্ঠানে নড়াইলের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আশফাকুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মোহাম্মদ রেজাউল করিম।

ফলক উন্মোচন ইউনিয়নের নাকশী আবু বক্কর সিদ্দিকী মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোসের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন  প্রধান অতিথি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক এমপি, বিশেষ অতিথি নড়াইল-১ আসনের এমপি করিবুল হক মুক্তি, প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নিজাম উদ্দিন খান নিলু এবং সমাপনী বক্তব্য ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা।  

এ সময় লানিং এন্ড আনিং ডেভেরপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় দুইজন সফল উদ্যোক্তার সফলতার গল্প শোনেন মন্ত্রী এবং স্মার্ট নারী উদ্যোক্তাদের মাঝে চেক বিতরণ করেন।

এ সময় বিভিন্ন শেণি-পেশার হাজার হাজার মানুষ এসব অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।