• 25 Apr, 2024

রিতুর সঙ্গে শেষ হলো স্বপ্নটাও এলাকা জুড়ে শোকের ছায়া!

রিতুর সঙ্গে শেষ হলো স্বপ্নটাও এলাকা জুড়ে শোকের ছায়া!

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী তাসপিয়া জাহান রিতুর স্বপ্ন ছিল বিসিএস দেবেন, স্কলারশিপ নিয়ে বিদেশে যাবেন। হবেন বড় সরকারি কর্মকর্তা।

কিন্তু এ স্বপ্ন তার সঙ্গেই শেষ হয়ে গেল। গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকের পানিতে সাঁতার না জানা সহপাঠী মাবাশ্বেরা তানজুম হিয়াকে ডুবতে দেখে রিতু তাকে বাচাঁতে যান।আর সেখানে দুজনই পানিতে ডুবে মারা যান। মঙ্গলবার (১ আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টায় দিকে হৃদয়বিদারক এ ঘটনা ঘটে। তাসপিয়া জাহান রিতু চাঁদপুর সদরের বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের খেরুদিয়া গ্রামের শেখ আবদুর রবের মেয়ে। তার বাবা আবদুর রব একটি প্রাইভেট কম্পানিতে চাকরি করেন।রিতু দুই বোনের মধ্যে বড়। তিনি বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার মাসকাটা গ্রামে নানা ইবারাত আলী মোল্লার বাড়িতে বড় হয়েছেন। রিতুর নানা ইবারাত আলী মোল্লা কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, রিতুকে নিয়ে অনেক স্বপ্ন ছিল। ছোটবেলা থেকে সে আমাদের এখানে থাকে।বড় হয়ে বড় সরকারি কর্মকর্তা হবে। সব স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল আমাদের। বুধবার (২ আগস্ট) সকাল ৯টায় মাসকাটা ঈদগাহ ময়দানে রিতুর জানাযার নামাজ শেষে নানা বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়। রিতুর নানাবাড়িতে চলছে মাতম। ঘটনার পর থেকে বাবা শেখ আবদুর রব ও মা রূপা বেগম প্রায় বাকরুদ্ধ। রিতুর মৃত্যুতে মাসকাটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এদিকে, বুধবার সকালে রিতুর নানাবাড়িতে আসেন গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এ কিউ এম মাহবুব, কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. মোবারক হোসেন, প্রক্টর ড. মো. কামরুজ্জামান। এসময় বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক ও সহপাঠীরা উপস্থিত ছিলেন।