• 24 Feb, 2024

অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও অন্যের জমি দখল করলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে: ডিসি কাজী মাহবুবুল আলম

অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও অন্যের জমি দখল করলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে: ডিসি কাজী মাহবুবুল আলম

অবৈধভাবে বালু উত্তোলন ও ফসলি জমির শ্রেণি পরিবর্তন এবং অন্যায় ভাবে অন্যের জমি দখল করলে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনী ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মাহবুবুল আলম।

রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালে গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষ "স্বচ্ছতা'য় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আয়োজিত জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় (আগস্ট/২৩) তিনি এ নির্দেশনা দেন। এসময় তিনি বলেন, যেহেতু গোপালগঞ্জে কোন বালু মহল নেই। কেউ যদি অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে এবং ফসলি জমির শ্রেণি পরিবর্তন করে তাহলে তাদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় নেওয়ার হুঁশিয়ারি নির্দেশ দেন। 

এসময় তিনি সকল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদেরকে বেশি বেশি করে স্ব-স্ব উপজেলায় যথাযথভাবে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনারও নির্দেশনা দেন। এছাড়াও ভ্রাম্যমান আদালত ঘটনা স্থলে যাওয়ার পূর্বে থানায় কেউ অভিযোগ জানালে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের কেউ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রতিহত করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

গোপালগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার আল-বেলী আফিফা সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাদেরকে চাপাইল ব্রীজের নিচ থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধে দিনে-রাতে পুলিশি টহল জোরদার করার নির্দেশ দেন।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মো. আমিনুর রহমানের সঞ্চালনায় গোপালগঞ্জ জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহাবুব আলী খান, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মুহাম্মদ রুহুল আমিন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ লুৎফার রহমান বাচ্চু, পৌরমেয়র শেখ রকিব হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহাইমিনুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো.খায়রুল আলম, জেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা মো. ফজলে রাব্বি, গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. জিবিতেষ বিশ্বাস, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহসিন উদ্দীন, কাশিয়ানী উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেহেদী হাসান, কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরদৌস ওয়াহিদ, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আল-মামুন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.আরিফ হোসেন, সহকারী পুলিশ সুপার কামরুজ্জামান, জেল সুপার মো. আল মামুন, গোপালগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আনিচুর রহমান, মুকসুদপুর থানার ওসি মুহাম্মদ আশরাফুল আলম, কাশিয়ানী থানার ওসি মুহাম্মদ ফিরোজ আলম, কোটালীপাড়া থানার ওসি মো. জিল্লুর রহমান, টুঙ্গিপাড়া থানার ওসি এস এম কামরুজ্জামান,  জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. হারুন অর রশীদ, গোপালগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আশিষ কুমার, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মুহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম, সিনিয়র সাংবাদিক মোজাম্মেল হোসেন মুন্না, মো.জুবায়ের হোসেন, মিজানুর রহমান মানিক, কে এম সাইফুর রহমান, মনির মোল্লা, গোপালগঞ্জ জেলা বাস মিনি বাস মালিক সমিতির সভাপতি মাসুম সিকদার, সাধারণ সম্পাদ জামিন সরোয়ার, জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি বুলবুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক কাজী সাঈদ সহ জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।