• 21 May, 2024

নড়াইলে যুবলীগের কর্মী আজাদ হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

নড়াইলে যুবলীগের কর্মী আজাদ হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

নড়াইলের কালিয়ায় বিএনপি-জামাতের সন্ত্রাসী কর্তৃক যুবলীগকর্মী আজাদ হত্যা মামলা দ্রুত বিচার আইনে তালিকাভুক্ত ও আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে পেড়লীতে মানববন্ধন হয়েছে।

রোববার (১৭ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় পেড়লী ইউনিয়ন যুবলীগর উদ্যোগে পেড়লী বাজারস্থ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সম্মুখের রাস্তায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ নানা শ্রেণিপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। পেড়লী ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি নিহত আজাদের ছোট ভাই মো. সাজ্জাদ শেখের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কালিয়া উপজেলা যুবলীগ আহ্বায়ক খান রবিউল ইসলাম, পেড়লী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান মো.আনিসুল ইসলাম বাবু, হাবিবুল আলম বীরপ্রতীক মহাবিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি আ’লীগ নেতা নজরুল ইসলাম শেখ, ফাজেল আহম্মদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি পলাশ মাহমুদ মোল্যা, পেড়লী বাজার বণিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবু মুছা রানা, মাও. মহিউদ্দিন শেখ, নিহত আজাদের সন্তানহারা মা খুরশিদা বেগম ও তার বিধাব স্ত্রী হালিমা বেগম প্রমুখ। বক্তারা বলেন, বিএনপি-জামাত সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত যুবলীগকর্মী আজাদ শেখ হত্যাকান্ডটি একটি চাঞ্চল্যকর রাজনৈতিক হত্যাকান্ড। প্রায় দুইমাস অতিবাহিত হলেও অদ্যাবধি পুলিশ রহস্যজনক কারণে কোনো আসামী গ্রেফতার করেনি। বক্তারা মামলাটি দ্রুত বিচার আইনে তালিকাভুক্ত করে অচিরেই আজাদ হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ডের দাবি জানান। প্রসঙ্গতঃ ২০জুলাই যুবলীগকর্মী মো.আজাদ শেখ বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের খুলনা বিভাগীয় ‘তারুণ্যের জয়যাত্রা’ সমাবেশ থেকে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পেড়লী গ্রামে নিজবাড়ি ফেরার পথে খানকাহপাড়া চৌরাস্তায় পৌঁছালে আজাদ শেখকে অকস্যাৎ আক্রমণ করে কুপিয়ে ও পিটিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে। এই ঘটনার বিচার চেয়ে তখন সারাদেশে কেন্দ্রীয় যুবলীগ বিভিন্ন কর্মসুচি পালন করে। ওই ঘটনায় ২৩ জুলাই কালিয়া থানায় মামলা দায়ের হয়। কিন্তু গ্রায় দুইমাস অতিবাহিত হলেও অদ্যাবধি পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। বরং মামলা তুলে নেয়ার জন্য আসামিরা হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাদী সাজ্জাদ শেখ ।