• 25 Jun, 2024

নড়াইলে চিহ্নিত ভূমিদস্যু মোহাম্মদ উল্লাহ'র শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

নড়াইলে চিহ্নিত ভূমিদস্যু মোহাম্মদ উল্লাহ'র  শাস্তির  দাবীতে মানববন্ধন

স্টাফ রির্পোটার: নড়াইলে চিহ্নিত ভূমিদস্যু সেটেলমেন্ট অফিসের দালাল মোহাম্মদ উল্লাহ কতৃক বাড়িঘর ভাংচুর জবরদখল ও শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) সকাল ১১ টায় নড়াইল আদালত চত্ত্বরে ভূক্তভোগী পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে এই মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

মানববন্ধনে ভূমিদস্যু মোহাম্মদ উল্লাহ'র অত্যাচারের বর্ণনা দেন ভূক্তভোগী নাসিমা বেগম এবং তার ছেলে আব্দুলাহ আল মামুন।

নাসিমা বেগম জানান,১৯৯৬ সালে ধোপাখোলা মৌজায় কালিপদ গংদের কাছ থেকে ৩০ শতক জমি আমি খরিদ করে আমার নামে নামপত্তন করি।সেখানে তিনরুম বিশিষ্ট একটি পাকা স্থাপনা নির্মান করে স্বামী সন্তান নিয়ে বসবাস করছিলাম।হঠাৎ   আমার স্বামী  আঃ মান্নান অসুস্থ হওয়ায় আমি তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাই।

আর এই সুযোগে চিহ্নিত ভূমিদস্যু  মোহাম্মদ উল্লাহ জাল জালিয়াতি করে ভূয়া দলিল সৃষ্টি করে আমার  বাড়ি ফাঁকা পেয়ে তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে  তিনরুম বিশিষ্ট বাড়িটি ভেঙে ফেলে।

আমি খবর পেয়ে বাড়ি চলে আসি,এর পরও   তিন দফায় রাতের আধারে ভেকু দিয়ে আমার বাড়ি, গাছ পালা ভেঙেছে মোহাম্মদ। ভূমিদস্যু মোহাম্মদ উল্লাহকে থামাতে আদালতে ১৪৪,১৮৮ ও এল এস টি মামলা করেছি,কিন্তু কোন কাজই হয়নি,পুলিশের কাছে বার বার সহযোগীতা চেয়েও ব্যর্থ হয়েছি।
আমি এই ভূমিস্যুর দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি চাই।

ভূক্তভোগী নাসিমা বেগমের ছেলে আব্দুলাহ আল মামুন বলেন, আমরা নড়াইলের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে এই চিহ্নিত ভূমিদস্যুর দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি চাই, যাতে এই কাজ আর কেউ করতে সাহস না পায়।