• 21 May, 2024

লোহাগড়ার ব্রাহ্মণডাঙ্গা গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর মোল্যার ইন্তেকাল

লোহাগড়ার ব্রাহ্মণডাঙ্গা গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর মোল্যার ইন্তেকাল

আবদুস সাত্তার, নড়াইলঃ দীর্ঘ ১৭বছর ধরে মরণব্যাধি ক্যান্সারের সাথে যুদ্ধ করে জীবন যুদ্ধে হেরে গেলেন নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ব্রাহ্মণডাঙ্গা গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ আবু মোঃ জাফর মোল্যা।

শুক্রবার (১৮ আগষ্ট) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে নিজ বাড়িতে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহে—রাজেউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৭০ বছর।

তিনি দুই ছেলে, এক মেয়ে, নাতী নাতনী সহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও শভাকাঙ্খী রেখে গেছেন।  বড় ছেলে শামীম পারভেজ জনি পেশায় একজন ব্যবসায়ী, মেঝো ছেলে নাঈম পারভেজ মনি ও মেয়ে জান্নাত আরা যুথী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন। স্ত্রী স্কুল শিক্ষক সাজেদা পারভীন ১০ বছর আগে মৃত্যুবরণ করেন।

মৃত্যুর খবর শুনে এলাকাসহ আশেপাশের বিভিন্ন এলাকার অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও শুভাকাঙ্খী শেষবারের মতো দেখার জন্য বাড়ীতে  ভীড় করেন।

এদিকে শুক্রবার সন্ধ্যায় নিজ বাড়িতে পুলিশের একটি চৌকষ বাহিনী রাষ্ট্রীয় সম্মাননা গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আসগর আলী, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মোঃ আব্দুল হামিদ। এর আগে বীরমুক্তিযোদ্ধার কফিনটি জাতীয় পতাকা দিয়ে ঢেকে দেয়া হয় এবং শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়।

এশার নামাযের পর ব্রাহ্মণডাঙ্গা ঈদগাহ মাঠে জানাযার নামায সম্পন্ন হয়। নামাযে বীরমুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, এলাকাবাসী, আত্মীয় স্বজন, শুভাকাঙ্খী সহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। জানাযা শেষে ব্রাহ্মণডাঙ্গা কবরস্থানে দাফন করা হয়।

বীরমুক্তিযোদ্ধা জাফর মোল্যা দীর্ঘদিন ধরে এলাকার সামাজিক কর্মকান্ডে নেতৃত্ব দিয়ে এসেছেন। ক্যান্সারে দুর্বল হয়ে যাওয়ায় ২ বছর আগের থেকে সব প্রকার সামাজিক কর্মকান্ড থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন।