• 22 Apr, 2024

ডেঙ্গুর কারণে স্যালাইনের চাহিদা ১০ গুণ বেড়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডেঙ্গুর কারণে স্যালাইনের চাহিদা ১০ গুণ বেড়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ডেঙ্গুর কারণে দেশে হঠাৎ করে স্যালাইনের চাহিদা বেড়েছে প্রায় ১০ থেকে ১২ গুণ। চাহিদা বাড়ার কারণে বিভিন্ন স্থানে স্যালাইনের সংকটও দেখা দিয়েছে। ডেঙ্গুর জন্যই স্যালাইনের এতো চাহিদা সৃষ্টি হয়েছে। তবে স্যালাইনের চাহিদা পূরণের জন্য দেশের সকল স্যালাইন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য বলা হয়েছে।

প্রয়োজনে দেশের বাইরে থেকে স্যালাইন আমদানির জন্য মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (১১ আগস্ট) বিকেলে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার জাগীর ইউনিয়নের ঢাকুলি এলাকায় এক কোটি ৬৫ লাখ ২৪ হাজার টাকা ব্যয়ে প্রায় দেড় কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি-জামায়াতকে উদ্দেশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের ক্ষমতায় তারাও তো ছিলো, কিন্তু তারা এলাকায় কোনো উন্নয়ন করেনি। উন্নয়নের টাকা লুটপাট করে খাওয়াই ছিল তাদের লক্ষ্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা করেছেন, গ্রামকে শহরে উন্নীত করার। আজ প্রতিটি গ্রামেই শহরের সকল সুযোগ-সুবিধা আছে। যেসব জায়গায় কাঁচা রাস্তা ছিল আজ সেখানে পাকা সড়ক হয়েছে। প্রতিটি বাড়িতে বিদ্যুৎ আছে, মানুষ নিরাপদে আছে, মানুষ ভালো আছে। দেশের মানুষ উন্নয়নের সঙ্গে আছে, দেশের মানুষ আর বোমা হামলা, আগুন সন্ত্রাসের সাথে নেই। তাই আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মানুষ আনন্দের সাথে নৌকায় ভোট দেবে।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে মশা নিধনে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে আরও গতিশীল হতে হবে। কারণ মশা কমলেই ডেঙ্গুর প্রকোপ কমে যাবে। বেশি করে মশা নিধনের ওষুধ প্রয়োগ করার জন্য মন্ত্রণালয় থেকে সিটি কর্পোরেশেন ও পৌরসভাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া জনসাধরণকেও সচেতন হতে হবে, কারণ এডিস মশা যাতে জন্মাতে না পারে সেজন্য বাসা-বাড়ির আঙিনা ও চারপাশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে ডেঙ্গু পরীক্ষার কিটের কোনো সংকট নেই, পর্যাপ্ত কিট রয়েছে। তবে যদি কোনো সরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গু পরীক্ষার কিট সংকট দেখা দেয়, তাহলে চাহিদা মোতাবেক তা দ্রুত সরবরাহ করা হবে।


পরে ঢাকুলী সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জাগীর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন স্বাস্থামন্ত্রী।

জনসভায় জাগীর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শামীম হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জাগীর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাকির হোসেনের সঞ্চালনায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম, সহ-সভাপতি পৌর মেয়র রমজান আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, সাংগঠনিক সম্পাদক সুদেব সাহা, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আফসার উদ্দিন সরকার, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য দেন।