• 17 Jun, 2024

বন্দরে পাইপ ফিটার মিস্ত্রিকে কুপিয়ে আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন

বন্দরে পাইপ ফিটার মিস্ত্রিকে  কুপিয়ে আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন

বন্দর প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের বন্দরে পূর্ব বিরোধের জের ধরে রফিকুল ইসলাম(৩৪)নামে এক পাইপ মিস্ত্রিকে হত্যার চেষ্টায় নৃশংসভাবে কুপিয়ে আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন ও জখম করে মোবাইল নিয়ে গেছে আফজাল,জাহাঙ্গীর,রানা,রনি,বিজয়,রুবেল,সোহেল ও মিঠুসহ তাদের সহযোগীরা।

 ১৯মে রোববার দুপুরে ২৪নং ওয়ার্ডের দেউলী বটতলা কবরস্থান এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। আহত রফিকুলকে গুরুতর অবস্থায় প্রথমে নারায়ণগঞ্জ খানপুর ৩শ’ শয্যা হাসপাতালে পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় আহতের ছোট বোন বৈশাখী আক্তার বাদী হয়ে ৮জনের নাম উল্লেখসহ ১০/১১জনকে আসামী করে সোমবার দুপুরে বন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। যার নং ২৯(৫)২০২৪ইং। মামলায় উল্লেখ করা হয়,দেউলি বটতলা কবরস্থান রোড এলাকার মৃত নুরু মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম একজন পাইপ ফিটার মিস্ত্রি। তার সঙ্গে এলাকার মৃত মিছির আলীর ছেলে আফজাল,জাহাঙ্গীর গংয়ের সামাজিক বিষয়াদি নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে ১৯ মে রোববার দুপুরে রফিকুল বাসা থেকে কাজের উদ্দেশ্য বের হয়। বেলা ১টার সময় রফিকুল স্থানীয় আহসান মিয়ার বাড়ির সামনে পৌঁছলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা উল্লেখিত সন্ত্রাসীরা রফিকুলের পথরোধ করে এবং সে কিছু বুঝে ওঠার আগেই সন্ত্রাসীরা তাদের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র-সস্ত্র দিয়ে হত্যার চেষ্টায় তাকে এলোপাথাড়ি  কোপায়। হামলাকারীদের অস্ত্রাঘাতে রফিকুলের ডান হাতের মধ্য আঙ্গুল বিচ্ছিন্নসহ গলা ও হাতের তালু ও শরীরের অন্যান্য স্থানে রক্তাক্ত জখম। এ সময় আহত রফিকুল ডাক চিৎকার করলে আশ পাশের লোকজন রফিকুলকে উদ্ধরে ছুটে এলে অবস্থা বেগতিক বুঝে দ্রুত সটকে পড়ে। পরে আহতকে ধরাধরি করে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ খানপুর ৩শ’ শয্যা হাসপাতালে পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।