• 24 Feb, 2024

`আমি রেলে চড়ে নড়াইলে এসেছি'- রেলমন্ত্রী

`আমি রেলে চড়ে নড়াইলে এসেছি'- রেলমন্ত্রী

রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন এমপি বলেছে, কিছুদিন আগে ঢাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্তু রেল চলাচল অনুষ্ঠানিক ভাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করেছেন। বর্তমানে বানিজ্যিক ভাবে রেল চলাচল করছে। আমি রেলে চড়ে এখানে এসেছি।

শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে চায়না ঠিকাদারী কোম্পানীর (সি আর এস ই) একটি ইঞ্জিন কারে চড়ে ভাঙ্গা-যশোর রেল সড়কের লাইন নির্মান কাজের অগ্রগতি পরিদশনে জেলার লোহাগড়ার নারানদিয়া স্টেশন পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের তিন এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ভাংঙ্গা থেকে যশোর অংশের রেললাইন নির্মান কাজ ইতিমধ্যে ৮৪ভাগ শেষ হয়েছে। রেল লাইন নির্মান কাজের অগ্রতি দেখে আমরা সন্তুষ্টু। আগামী জুনে কাজের মেয়াদ থাকলেও আরো দুই একমাস আগে শেষ হবে বলে আশা করছি।

মন্ত্রী বলেন, আমরা গত নির্বাচনে যে ইশতেহার দিয়েছিলাম সেটা অনুযায়ী এই সরকার তার কাজে কতটুকু সফল হতে পেরেছে, মানুষ কতটুকু সন্তুষ্ট তার ওপর নির্ভর করে জনগণ ভোট দেবে। ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে মানুষ তাদের মতামত প্রকাশ করবে এটাইতো গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া।

রেলমন্ত্রী বলেন, সামনে নির্বাচন। আমাদের দল নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করবে। এরপর জনগণের কাছে এই ইশতেহার নিয়ে সামনে যাওয়া হবে। আগামী পাঁচ বছর যদি জনগণ ভোটাধিকারের মাধ্যমে আমাদের সরকার গঠন করার সুযোগ দেয় তাহলে আমরা ইশতেহার অনুযায়ী এই কাজগুলো করব। তখন পাঁচ বছর পরে জনগণ নির্ধারণ করবে, তারা (সরকার) কথাগুলো দিয়েছিল পাঁচ বছরে তার কতটুকু অর্জন ও বাস্তবায়ন করতে পেরেছে কি পারেনি। সেই জিনিসটা তখন মূল্যায়ন করবে।

নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রকল্পের কাজগুলো দ্রুত করা হচ্ছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, নির্বাচন তো চলমান। পাঁচ বছর পরে নির্বাচন হবে। কিন্তু এ প্রকল্পের কাজ তো আগামী জুন মাসে শেষ হবে। এটার সঙ্গে নির্বাচনের কোনো সম্পর্ক নেই। যেহেতু পরবর্তী সরকার না আসা পর্যন্ত আমরা তো দায়িত্বে আছি। কাজেই আমাদের দায়িত্বের মধ্যেই কাজটি পরিদর্শনে আসা।

এসময় তার সঙ্গী ছিলেন বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক কামরুল হাসান, ভাঙ্গা-যশোর রেল সংযোগ প্রকল্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শামসুল আলম শামসসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। বিকালে মন্ত্রী লোহাগড়া হয়ে নড়াইল রেলস্টেশন পরিদর্শন করেন।