• 21 May, 2024

ভারতে ভিসামুক্ত ভ্রমণের প্রস্তাব

ভারতে ভিসামুক্ত ভ্রমণের প্রস্তাব

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কোনো দেশেই নিষেধাজ্ঞা দিয়ে সফল হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভানের সঙ্গে আমাদের সুন্দর আলোচনা হয়েছে। যে সাংবাদিক লিখেছেন আলোচনা মাঝপথে থেমে গিয়েছিল তিনি মিথ্যাবাদী। তিনি আহাম্মকের স্বর্গে আছেন। গতকাল বিকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন তিনি। ব্রিফিংয়ে তিনি বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে ভিসামুক্ত ভ্রমণের বিষয়ে প্রস্তাব দেওয়ার কথাও জানান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিতে বাংলাদেশ সরকার কী উদ্যোগ নিয়েছে, সে বিষয়ে জানতেই মার্কিন প্রাক-নির্বাচনি পর্যবেক্ষক দল বাংলাদেশে এসেছে। তাদের কাছে দেশের নির্বাচনি পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়েছে, সব বিষয় তাদের ইতিবাচক মনে হয়েছে। এ কে আবদুল মোমেন আরও বলেন, ২৪ অক্টোবর ব্রাসেলসে আন্তর্জাতিক সম্মেলন গ্লোবাল গেটওয়ে ফোরামে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের কথা রয়েছে। ভারতে বাংলাদেশিদের ভিসামুক্ত যাতায়াত নিশ্চিতে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত আইওরা সম্মেলনে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করকে অনুরোধ করা হয়েছে বলেও জানান আবদুল মোমেন। বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে ভিসামুক্ত ভ্রমণের বিষয়ে প্রস্তাব ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। তিনি বলেন, কলম্বোয় ইন্ডিয়ান ওশান রিম অ্যাসোসিয়েশন (আইওআরএ) সম্মেলনের সাইড লাইনে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। সে সময় তাঁকে জানিয়েছি, আপনারা অনেক ভিসা দেন। কিন্তু ভিসা পেতে এখন দেরি হচ্ছে। মেডিকেল ভিসার ক্ষেত্রেও দেরি হচ্ছে। তখন তিনি জানিয়েছেন, এ বিষয়ে ঢাকার হাইকমিশনের সঙ্গে আলাপ করবেন। সিলেটে কয়েকদিন আগে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে সংলাপ হয়েছে। সেখানে দুই দেশের মধ্যে ভিসামুক্ত ভ্রমণের জন্য প্রস্তাব তোলা হয়েছে। আমরা দুই দেশের মধ্যে ভিসামুক্ত যাতায়াত চাই। এক প্রশ্নের উত্তরে ড. মোমেন বলেন, শ্রীলঙ্কায় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্করের সঙ্গে ভিসামুক্ত ভ্রমণের বিষয়টি তুলে ধরেছি। তিনি বলেছেন, এটা নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করতে হবে। তিনি ‘না’ বলেননি।