• 15 Jun, 2024

ভারত ফ্রান্সের কাছ থেকে ২৬ রাফাল যুদ্ধবিমান ও ৩ সাবমেরিন কিনছে!

ভারত ফ্রান্সের কাছ থেকে ২৬ রাফাল যুদ্ধবিমান ও ৩ সাবমেরিন কিনছে!

ফ্রান্সের কাছ থেকে ২৬টি রাফাল যুদ্ধবিমান এবং ৩টি স্করপেন ক্লাস সাবমেরিন কিনবে ভারত। ইতোমধ্যে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ভারত সরকার।

দুদিনের (১৩ ও ১৪ জুলাই) সফরে ফ্রান্সে অবস্থান করছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার প্যারিসে ফরাসি প্রধানমন্ত্রী এলিজাবেথ বোর্নের সঙ্গে বৈঠক করেছেন মোদি। এদিন রাতে ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে নৈশভোজ অংশও নিয়েছেন। শুক্রবার চ্যাম্পস এলিসিসে ফ্রান্সের বাস্তিল দিবসের বার্ষিক কুচকাওয়াজেও অংশ নেন মোদি।

ধারণা করা হচ্ছে, মোদির সফরের শেষ পর্যায়ে যুদ্ধবিমান ও সাবমেরিন কেনার বিষয়ে আনুষ্ঠানিক চুক্তির খবর পাওয়া যাবে। খবর এনডিটিভি, ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল ও পলিটিকোর।

সশস্ত্র বাহিনীর একটি সূত্র জানিয়েছে, ভারতের নৌবাহিনী ফ্রান্সের কাছ থেকে ২২টি ড্যাসল্ট রাফাল যুদ্ধবিমান এবং ৪টি প্রশিক্ষণ বিমান কেনা হবে। এছাড়া তিনটি স্করপেন ক্লাস সাবমেরিনও কিনতে চায় তারা।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, প্রতিবেশী চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে নিজেদের নৌবাহিনীকে জোরদার করতেই এগুলো কিনছে ভারত।

ভারতের নৌবাহিনী দীর্ঘদিন ধরেই এই বিমান এবং সাবমেরিনগুলো কেনার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা সম্প্রতি দেশের অভ্যন্তরে নানা ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হলেও প্রয়োজনীয় যুদ্ধবিমান এবং সাবমেরিনের অভাবে নিজেদের সক্ষমতাকে পরিপূর্ণভাবে কাজে লাগাতে পারছে না।

বর্তমানে ভারতীয় নৌবাহিনীর বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রমাদিত্য এবং আইএনএস বিক্রান্তে কেবল রাশিয়ার তৈরি মিগ-২৯ যুদ্ধবিমান রয়েছে। তবে বিমানবাহী রণতরী দুটিতে ধারণক্ষমতার চেয়ে কম সংখ্যক বিমানই রয়েছে।

অপরদিকে, ভারতীয় নৌবাহিনীর প্রজেক্ট-৭৫ এর আওতায় আরো তিনটি স্করপেন ক্লাস সাবমেরিন কেনা হবে। তবে সাবমেরিনগুলোকে সরাসরি ফ্রান্সে তৈরি না করে দেশটির প্রযুক্তিগত সহায়তায় মুম্বাইয়ের ডকইয়ার্ডে নির্মাণ করা হবে।

এনডিটিভি বলছে, পুরো চুক্তিতে খরচ হবে ৯০ হাজার কোটি রুপি। তবে ভারত ফ্রান্সের কাছ থেকে আরো কম খরচে চুক্তি সম্পন্ন করা যায় কিনা সে চেষ্টা চালাবে।