• 25 Apr, 2024

উন্নয়নের জন্য মাশরাফীকে পুনরায় এমপি দেখতে চাই

উন্নয়নের জন্য মাশরাফীকে পুনরায় এমপি দেখতে চাই

‘বর্তমান সরকারের চলমান উন্নয়ন ধারা অব্যহত রাখতে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার পাশে থাকুন এবং আগামি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে উন্নয়নের মার্কা নৌকায় ভোট দিন’ মুলমন্ত্রকে সামনে রেখে নড়াইল-২ আসনের সর্বস্তরের জনগণ নড়াইল সদরের মাইজপাড়া ও শাহাবাদ হাটে ভোট ক্যাম্পেইন করেছে। শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) বিকাল ৩টায় মাইজপাড়া হাট ও ৪টায় শাহাবদ হাটে প্রচারাভিযান করা হয়।

এ সময় নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার নির্বাচনী এলাকায় বিগত ৫ বছরের উল্লেখযোগ্য চলমান ও প্রক্রিয়াধীন বা গৃহিত উন্নয়ন প্রকল্প এবং মাইজপাড়া ও শাহাবাদ ইউনিয়নে ২০১৯ সাল হতে এ পর্যন্ত বাস্তবায়িত বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম সম্বলিত লিপলেট হাটের বিভিন্ন অলি-গলিতে বিতরণ করা হয়।  

লিপলেট বিতরণকালে ফুটপথে তরিতরকারি এক ব্যবসায়ী বলেন, আমি দীর্ঘবছর ধরে এই ব্যবসা করছি, তবে অন্যান্য আমলের চেয়ে আমরা এ সরকারের আমলে শান্তিতে ব্যবসা করছি। কোন চাঁদাবাজি নেই, নেই কোন সন্ত্রাসী কাজ-কাম। আমরা খুব ভলোই আছি। আমরা পুনরায় এ সরকারকে চাই।  

হাট করতে আসা উড়ানী গ্রামে গৃহস্থ আমাদেরকে বলেন, এলাকার উন্নয়ন করতে হলে মাশরাফীর বিকল্প নেই। তাকে পুনরায় মনোনয়ন দিলে এলাকার অসম্পূর্ণ কাজ করা সম্ভব হবে।  

মাইজপাড়ার এক মুদি ব্যবসায়ী বলেন মাশরাফীর জন্য আমাদের হারিয়ে যাওয়া মরাচিত্রায় জোয়ার-ভাটা হচ্ছে। তার কারনে এ নদীর উর দিয়ে ব্রীজ হইছে। তাকে আমরা আবার এমপি হিসেবে দেখতে চাই।    

এ প্রচারাভিযানে অংশগ্রহণ করেন নড়াইল জেলা আওয়ামীলীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক মো: আলমগীর হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ও নড়াইল পৌরসভার প্যানেল মেয়র কাজী জহিরুল হক, জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো: তারিকুল ইসলাম উজ্জ্বল, সাধারণ সম্পাদক ও আউড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান এস এম পলাশ, জেলা যুব লীগের যুগ্ম আহবায়ক ফরহাদ হোসেন, জেলা যুব লীগের যুগ্ম আহবায়ক মাহফুজুর রহমান, হবখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: টিপু সুলতান, সাবেক শাহাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগ সদস্য দেলোয়ার হোসেন পান্না, জেলা যুব লীগের সদস্য তরিকুল বিশ্বাস, সাবেক ভিপি (ভিক্টোরিয়া কলেজ) মাসুদুল হাসান সাবু, সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি মিলন খান, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক স্বপনীল, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সির্দ্ধথ সিংহ পল্টুসহ আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

বিতরণকৃত লিপলেটে প্রক্রিয়াধীন প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে নড়াইল জেলার ঝুঁকিপূর্ণ স্থান সমূহ নদীর ভাঙ্গন হতে রক্ষার্থে স্থাত্রী নদীর তীর সংরক্ষণ প্রকল্প ব্যয় ৬৯৭ কোটি টাকা; মধুমতি নদী ড্রেজিং ও উভয় তীররক্ষা প্রকল্প; নড়াইল জেলার লোহাগড়ায় অর্থনৈতিক জোন নির্মাণ প্রকল্প এবং নড়াইলে বিসিক শিল্প নগরী স্থাপন প্রকল্প।

উল্লেখযোগ্য চলমান উন্নয়ন কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে, মধুমতি নবগঙ্গা উপ প্রকল্প পুনর্বাসন ও মরা নদী পুনঃখননের মাধ্যমে পুনরুজ্জীবন ও পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষা শীর্ষক প্রকল্প ব্যয় ৩০৩ কোটি টাকা; পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প ১ম পর্যায় বরাদ্দ ২৫০ কোটি টাকা; নড়াইল জেলার নডড়াইল সদর হাসপাতাল ২৫০ শয্যায় উন্নীত করণ ও চিকিৎসা ব্যবস্থার উন্নয়ন; বিশ্ব ব্যাংকের অর্থনের হাসপাতালে ১০ শয্যা বিশিষ্ট আইসোলেশন ওয়ার্ড; নার্সিং ইনস্টিটিউট নির্মাণ; জেলার বিভিন্ন স্কুল ও কলেজ সরকারিকরণ; নড়াইল শহর প্রসস্থকরণে মালিবাগ টু সীতারামপুর ফোরলেন সড়ক নির্মাণ; বেকারত্ব দূরীকরণে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউভেশন সেন্টার নির্মাণ; ভূমিহীন মানুষের জন্য গৃহ নির্মাণ; এমজিএসপি এ নড়াইল ও লোহাগড়া পৌরসভা অন্তর্ভুক্ত। # হাতেম আলী খান ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ অনুমোদন; এনএসআই ভবন নির্মাণ; পাসপোর্ট অফিস ভবন নির্মাণ; হাটবাড়ি ডিসি পার্ক প্রতিষ্ঠা এবং সকল ধরনের ভাতা নিশ্চিত ও বুদ্ধিকরণ।