• 25 Apr, 2024

‘উইমেন অব ইন্সপিরেশন’ সম্মাননা পেলেন তানজিন তিশা

‘উইমেন অব ইন্সপিরেশন’ সম্মাননা পেলেন তানজিন তিশা

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তানজিন তিশা। অভিনয়ে নিয়মিত মুগ্ধতা ছড়াচ্ছেন, অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছেন অনেককে। শোবিজ অঙ্গনে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ চলতি বছর ‘উইমেন অব ইন্সপিরেশন’ সম্মাননায় ভূষিত হলেন এ অভিনেত্রী।

নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে অসামান্য অবদান রাখায় জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) কর্তৃক ১২ জন নারীকে ‘উইমেন অব ইন্সপিরেশন’ সম্মাননা প্রদান করা হয়। শনিবার (২৬ আগস্ট) ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে পঞ্চমবারের মতো আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে বিজয়ীদের হাতে সম্মাননা তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।


এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডিশ রাষ্ট্রদূত আলেকজান্দ্রা বার্গ ভন লিন্ডে ও বাংলাদেশে সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের সমন্বয় বিভাগের উপপ্রধান করিন হেনচোজ পিগনানি। জেসিআই কর্তৃক জানানো হয়, পুরস্কারপ্রাপ্ত নারীরা তাদের নেতৃত্বগুণ, লক্ষ্যের প্রতি অসামান্য উৎসর্গ এবং অগণিত মানুষকে তাদের কাজের মাধ্যমে অনুপ্রাণিত করেছেন।

সম্মাননা পেয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় তানজিন তিশা বলেন, “উইমেন অব ইন্সপিরেশন’-এই সম্মাননাটা সত্যিকার অর্থেই নারীদেরকে নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে আরও ভালো কিছু করতে উৎসাহিত করবে। অন্যান্য অনেক সম্মাননার চেয়ে এটা অনেক আলাদা এবং সম্মানের। বিনোদন অঙ্গনে আমার অবদানকে মূল্যায়ন করে এমন একটা অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়ে সম্মাননা প্রদান করায় কর্তৃপক্ষকে বিশেষ ধন্যবাদ।’

তিশা ছাড়াও এ বছর পুরস্কারপ্রাপ্ত অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন শিক্ষা ক্ষেত্রে মুনজেরিন শহীদ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ক্ষেত্রে সারাবন তহুরা তুরিন, বাণিজ্য ক্ষেত্রে ফাদিয়া খান, করপোরেট ক্ষেত্রে ফারহা নাজ জামান, খেলাধুলায় রূপনা চাকমা, স্টার্টআপ ক্ষেত্রে সাদিয়া হক, শিল্প ও সাহিত্য ক্ষেত্রে রোকেয়া সুলতানা, ব্যাংকিং ক্ষেত্রে নুরুন নাহার বেগম, চিকিৎসা উদ্ভাবনে ডা. সায়েবা আর্থতার, উঠতি নারী নেতৃত্বে শবনম ওয়াজেদ এবং আজীবন সম্মাননা দিলারা জামান।