• 25 Jun, 2024

তৃতীয়বারের মতো ইউক্রেন সফর স্থগিত করলেন ম্যাক্রোঁ

তৃতীয়বারের মতো ইউক্রেন সফর স্থগিত করলেন ম্যাক্রোঁ

আবারও ইউক্রেন সফর স্থগিত করেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। এ নিয়ে টানা তৃতীয়বার রুশ আগ্রাসনের অধীনে থাকা দেশটিতে সফর স্থগিত করলেন তিনি।

যদিও সামনের কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই এই সফর অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে জানানো হয়েছে। সোমবার (১১ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনে প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সফর আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে বলে ফরাসি প্রেসিডেন্সি রোববার জানিয়েছে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে তৃতীয়বারের মতো পূর্ব ইউরোপের এই দেশটিতে পরিকল্পিত সফর স্থগিত করার পর ফরাসি প্রেসিডেন্সি একথা জানাল।

প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ এর আগে ফেব্রুয়ারিতে প্রাথমিকভাবে বলেছিলেন, তিনি প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সাথে দ্বিপাক্ষিক নিরাপত্তা চুক্তি স্বাক্ষর করতে ইউক্রেনে যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন। তবে জেলেনস্কি সেসময় চুক্তিটি সম্পন্ন করতে প্যারিসে যাওয়ায় কিয়েভে ম্যাক্রোঁর সফরটি স্থগিত করা হয়েছিল।

কূটনীতিকরা বলেছেন, এরপর মার্চের শুরুতে ম্যাক্রোঁর কিয়েভ সফরের দ্বিতীয় তারিখের পরিকল্পনা করা হয়েছিল। তবে পরে সেটিও পিছিয়ে এই সপ্তাহের শেষের দিকে নির্ধারণ করা হয়। শেষ পর্যন্ত তৃতীয়বারের মতো ইউক্রেন সফর স্থগিত করা হলো।

রয়টার্স বলছে, রোববার ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এবং ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি ফোনে কথা বলেন। এরপর ফ্রান্সের প্রেসিডেন্সি জানায়, ‘দুই রাষ্ট্রপ্রধান নিজেদের মধ্যে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগে থাকতে সম্মত হয়েছেন, বিশেষ করে প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর ইউক্রেন সফরের বিষয়ে... এটি আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে হবে।’

সম্প্রতি গ্রিসের প্রধানমন্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে ইউক্রেনের ওডেসায় গিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। যুদ্ধে ওই অঞ্চলের অবস্থা দেখাতেই তিনি সেখানে গ্রিসের প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে গিয়েছিলেন।

তাদের গাড়ির কনভয়ের মাত্র ৫০০ মিটার দূরে মিসাইল হামলা চালায় রাশিয়া। ইউক্রেনের অভিযোগ, জেলেনস্কি এবং গ্রিসের প্রধানমন্ত্রীকে হত্যা করতেই এই আক্রমণ চালানো হয়। কিন্তু রাশিয়া তা অস্বীকার করে।

মূলত এরপরই ইউক্রেনে ফরাসি প্রেসিডেন্টের সফর স্থগিত করার ঘোষণা দেওয়া হলো। সফরের সময় প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁরও ওডেসা সফরে যাওয়ার কথা ছিল।

রয়টার্স বলছে, ম্যাক্রোঁ সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরও কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছেন এবং ফ্রান্স ও ইউরোপের প্রতি মস্কো আরও আগ্রাসী হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন। একইসঙ্গে মস্কোকে পরাজিত করতে হবে বলেও দৃঢ়ভাবে জানিয়েছেন তিনি।

ফরাসি এই প্রেসিডেন্ট ইউক্রেনকে সাহায্য করার জন্য ইউরোপীয় মিত্রদের আরও জরুরিভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন এবং ইউক্রেনে পশ্চিমা সৈন্য পাঠানোর ধারণাকে উড়িয়ে দেওয়া উচিত নয় বলেও মন্তব্য করেছেন। যদিও এই মন্তব্যের কারণে অনেক পশ্চিমা মিত্রদের প্রতিক্রিয়ার সম্মুখীন হয়েছেন তিনি।

দুটি কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, ইউক্রেনের সাথে ঐক্য ও সংহতি দেখানোর প্রচেষ্টার অংশ হিসাবে কেবল সাধারণ দ্বিপাক্ষিক সফরের পরিবর্তে ম্যাক্রোঁর সফরের সময় অন্যান্য পশ্চিমা রাষ্ট্রপ্রধানদের যোগ দিতে বলে ইউক্রেন সফরকে আরও বিস্তৃত করা হবে কিনা তা বিবেচনা করছে ফরাসি প্রেসিডেন্সি।