• 20 Jun, 2024

‘নকল’ ইলিশে ছেয়ে গেছে পশ্চিমবঙ্গের বাজার, বাংলাদেশের বলে বিক্রি

‘নকল’ ইলিশে ছেয়ে গেছে পশ্চিমবঙ্গের বাজার, বাংলাদেশের বলে বিক্রি

বাংলাদেশের পদ্মার ইলিশের প্রতি বরাবরই টান রয়েছে পশ্চিমবঙ্গের বাঙালিদের। প্রতি বছর ইলিশের মৌসুমে পশ্চিমবঙ্গ, বিশেষ করে কলকাতার বাঙালিরা বাংলাদেশের ইলিশবাহী ট্রাকের প্রবেশের জন্য অপেক্ষা করে থাকেন। কিন্তু বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে রূপালি ইলিশ অনেক কম পাওয়া যাচ্ছে বলে দেশটির গণমাধ্যমের খবরে জানানো হয়েছে।

শুধু তাই নয়, দুর্গাপুজা পর্যন্ত ইলিশ মাছ মিলবে বলে জানিয়েছিল সেখানকার মৎস্য দপ্তর। তবে দেদার মিলবে এমন দাবি করা হয়নি। আবার এতটা কমে যাবে সেটাও বলা হয়নি। এবার এই সুযোগটা নিচ্ছে রাজ্যের কিছু অসাধু মাছ ব্যবসায়ী।


দেশটির সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস বলছে, পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন বাজারে ইলিশ বলে অন্য মাছ ক্রেতাদের ব্যাগে ভরে দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। যা আপাতদৃষ্টিতে ইলিশ মাছ মনে হলেও আসলে তা নয়। এমনভাবে অনেক ক্রেতাই ঠকেছেন বলে অভিযোগ করেছেন। বাজার যে ‘‌নকল’ ইলিশ মাছে ছেয়ে গেছে, তা পরিষ্কার।

দেশটির এই সংবাদমাধ্যম বলছে, বর্ষা মৌসুমে ইলিশ খাওয়ার ইচ্ছে রয়েছে বাঙালির। কিন্তু এই মুহূর্তে বাংলাদেশ থেকে ইলিশ মাছ আসা বন্ধ রয়েছে। তবে পদ্মার ইলিশ শিগগিরই আসবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। মধ্যবর্তী এই সময়ে গঙ্গার ইলিশের জোগানেও ভাটা পড়েছে। সুযোগ বুঝে নকল ইলিশ মাছ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। আর আসল ইলিশের দামও এখন বেশ চড়া। তাই সুযোগ বুঝে ক্রেতাদের খায়রা বা ইলিশ জাতীয় মাছ দিয়ে ঠকিয়ে দিচ্ছেন কিছু অসাধু মাছ ব্যবসায়ী।

পশ্চিমবঙ্গের মৎস্য দপ্তর সূত্রের বরাতে হিন্দুস্তান টাইমস বলছে, ইলিশ মাছের নামে সার্ডিন, যাত্রিক, টাকিয়া, চৌক্কা, পাসনা, খায়রা, সাগর চাপিলা বিক্রি করছেন বহু অসাধু মাছ ব্যবসায়ী। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে সার্ডিন ও চৌক্কা মাছ। এই মাছ বাংলাদেশ সংলগ্ন বাজারে ও মোহনার কাছে বেশি পাওয়া যায়। সার্ডিন দেখতে অনেকটা জাটকার মতো। চৌক্কা মাছ বেশ বড় এবং লম্বায় ইলিশের মতো। তবে ভালোভাবে দেখলেই ইলিশের সঙ্গে পার্থক্য বোঝা যাবে। এগুলো সহজে বোঝার উপায় না থাকায় ক্রেতাদের বাংলাদেশের ইলিশ মাছ বলে বিক্রি করা হচ্ছে।


ইলিশ নিয়ে যারা গবেষণা করছেন তাদের মতে, এই মাছগুলো ইলিশের চেয়ে কম চওড়া ও চোখের আকার বড়। চৌক্কা মাছের মাথা লম্বা ও সূচালো। সার্ডিনের মাথা বড় হলেও সামনের অংশ ভোঁতা। তবে সার্ডিন মাছের দেহ পুরু এবং পিঠের দিকের চেয়ে পেটের দিক ফোলা ও চ্যাপ্টা।

কিন্তু আসল ইলিশ মাছের পিঠ ও পেটের দিক প্রায় একইরকম। সার্ডিন মাছের পাখনা ঘোলাটে। আর ইলিশ মাছের পাখনা ফ্যাকাশে। এসব মাছে ইলিশের মতো গন্ধ নেই।