• 18 Jun, 2024

নিরাপত্তা হুমকির কারণে কানাডীয়দের ভিসা দেওয়া স্থগিত : ভারত

নিরাপত্তা হুমকির কারণে কানাডীয়দের ভিসা দেওয়া স্থগিত : ভারত

নিরাপত্তাজনিত’ কারণে কানাডার নাগরিকদের ভিসা প্রদান করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে ভারত। কানাডিয়ানদের জন্য ভারতের ভিসা প্রদানের প্রক্রিয়াটি করা হয়— বিএলএস ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি বেসরকারি সংস্থার মাধ্যমে।

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিএলএস ইন্টারন্যাশনাল এক নোটিশে জানায়, ‘প্রক্রিয়াগত কারণে’ পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তাদের ভিসা সেবা বন্ধ থাকবে।

ওই প্রতিষ্ঠানটি এমন নোটিশ দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর আনুষ্ঠানিকভাবে ‘কানাডিয়ানদের ভিসা প্রদান স্থগিত’ থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ভারত।

এ ব্যাপারে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আপনারা জানেন কানাডায় আমাদের দূতাবাস ও কনস্যুলেটের কর্মীরা নিরাপত্তা হুমকির মধ্যে আছে… এ বিষয়টি ভিসা প্রক্রিয়ার স্বাভাবিক কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত করেছে। এ কারণে আমাদের দূতাবাস এবং কনস্যুলেটগুলো অস্থায়ীভাবে ভিসা সেবা প্রদান করতে পারছে না। আমরা এ পরিস্থিতির ওপর সার্বক্ষণিক নজর রাখব।’

অরিন্দম বাগচি জানিয়েছেন, ভারত কানাডার নাগরিকদের ই-ভিসা প্রদানও স্থগিত করে দিয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, ‘কানাডা ভিসা প্রদানের ক্ষেত্রে যে বৈষম্য করে’ এ বিষয়টি সেটির সঙ্গেই সংশ্লিষ্ট।

তিনি বলেছেন, ‘সব ক্যাটাগরির ভিসা স্থগিত করা হয়েছে। বিষয়টি ভারতে ভ্রমণ করা নয়… যাদের আগে থেকেই ভিসা আছে তারা কোনো ধরনের বাঁধা ছাড়া ভারতে ভ্রমণ করতে পারবেন। আমাদের দূতাবাস এবং কনস্যুলেট যে সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে সেগুলো দূর করা এবং নিরাপদ পরিবেশ তৈরি করার বিষয়টিই মুখ্য।’

এদিকে হারদ্বীপ সিং নিজ্জার নামে এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান শিখ নাগরিকের হত্যাকাণ্ড নিয়ে গত সোমবার থেকে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কানাডা-ভারত কূটনৈতিক সম্পর্ক। ওইদিন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো দাবি করেন, হারদ্বীপকে হত্যা করেছে ভারতের সরকারি এজেন্টরা।

গত ১৮ জুন কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ায় দুই মুখোশধারীর গুলিতে নিহত হন হারদ্বীপ।

তবে এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে নিজেদের সংশ্লিষ্টতা থাকার বিষয়টি পুরোপুরি অস্বীকার করেছে ভারত।