• 24 May, 2024

লোহিত সাগরে মার্কিন জোটে যোগ দেবে না স্পেন

লোহিত সাগরে মার্কিন জোটে যোগ দেবে না স্পেন

লোহিত সাগরে নিরাপত্তা রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনীতে যোগ দেবে না স্পেন। ইউরোপের এই দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এই তথ্য জানিয়েছে। ইয়েমেনের সশস্ত্র বিদ্রোহীগোষ্ঠী হুথিদের হামলা মোকাবিলায় সম্প্রতি ১০ দেশের এই জোট গঠন করে যুক্তরাষ্ট্র।

পরে এই জোটে যোগ দেওয়া দেশের সংখ্যা ২০টিতে পৌঁছেছে বলে জানানো হয়। সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের আক্রমণ থেকে লোহিত সাগরে জাহাজ রক্ষার জন্য মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটে স্পেন যোগ দেবে না বলে রোববার জানিয়েছে দেশটি। ইরান-সমর্থিত এই বিদ্রোহীরা গাজায় চলমান সংঘাতের মধ্যে ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে লোহিত সাগরের কয়েক দফায় জাহাজে বেশ কয়েকটি হামলা চালিয়েছে।

মূলত লোহিত সাগরে বিভিন্ন জাহাজে একের পর এক হামলা চালিয়ে যাচ্ছে ইয়েমেনের সশস্ত্র বিদ্রোহীগোষ্ঠী হুথি। ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের অব্যাহত বোমাবর্ষণের প্রতিবাদে এসব হামলা চালানোর দাবি করেছে তারা।

এতে করে ওই অঞ্চলে বাণিজ্যিক জাহাজ চলাচল বেশ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। এই পরিস্থিতিতে লোহিত সাগরে হুথি বিদ্রোহীদের হামলা মোকাবিলায় সম্প্রতি ১০ দেশের জোট গঠনের ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র। হুথিদের হামলা ঠেকাতে এসব দেশ সমন্বিতভাবে কাজ করবে।

পরে গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন জানায়, লোহিত সাগরে জাহাজ চলাচলের লেন নিরাপদ রাখতে ২০টি দেশ ওয়াশিংটনের নেতৃত্বাধীন জোটে যোগ দিয়েছে।

অবশ্য জোটে যোগ দেওয়া প্রথম ১০টি দেশের মধ্যে স্পেনের নাম ছিল। এএফপি বলছে, তবে স্পেনের সরকার এ বিষয়ে দ্বিধাবিভক্ত ছিল এবং রোববার দেশপির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র এএফপিকে বলেছেন, স্পেন (এই জোটে) ‘অংশগ্রহণ করবে না’।

যদিও এই সিদ্ধান্ত ঘোষণার পেছনে কোনও কারণ উল্লেখ কর হয়নি। তবে রোববার স্প্যানিশ প্রেস জানিয়েছে, স্পেনের ঘরোয়া রাজনীতির কারণে ওয়াশিংটনের নেতৃত্বাধীন এই জোটে অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে।

মূলত স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেড্রো সানচেজ দেশটিতে একটি রাজনৈতিক জোট গঠনের প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছেন এবং এই কাজে তার উগ্র বামপন্থি দল সুমারের সমর্থন প্রয়োজন। আর এই বাম দলটি মার্কিন পররাষ্ট্র নীতির বিরোধিতা করে থাকে।

ইয়েমেনের হুথিরা অবশ্য স্পেনের এই অবস্থানকে স্বাগত জানিয়েছে। আরব উপদ্বীপের এই দেশটির উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী হুসেইন আল-ইজি বলেছেন, ‘সামুদ্রিক চলাচল ইস্যুতে আমেরিকান এবং ব্রিটিশদের ভন্ডামির প্রতি অস্বীকৃতি জানিয়ে স্পেনের নেওয়া অবস্থানকে আমরা অত্যন্ত প্রশংসা করি’।

উল্লেখ্য, ইরান-সমর্থিত হুথি বিদ্রোহীরা লোহিত সাগরে ট্যাংকার, মালবাহী জাহাজসহ অন্যান্য জাহাজের ওপর সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে হামলা বাড়িয়েছে। বৈশ্বিক বাণিজ্যের প্রায় ১২ শতাংশ এই লোহিত সাগর রুট দিয়েই হয়ে থাকে। আর হুথিদের হামলা এই ট্রানজিট রুটকে বাধাগ্রস্ত করছে।

জোট গঠনের সময় মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন বলেন, ‘সকল দেশের জন্য ন্যাভিগেশনের স্বাধীনতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এবং আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও সমৃদ্ধি জোরদার করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করবে এই নিরাপত্তা জোট।’

টিএম