• 21 May, 2024

কারচুপির মাধ্যমে ক্ষমতায় এলে সেই সরকার বেশি দিন টিকবে না

কারচুপির মাধ্যমে ক্ষমতায় এলে সেই সরকার বেশি দিন টিকবে না

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, আমরা মনে করি না জনগণের ভোট ছাড়া কেউ ক্ষমতায় আসতে পারে। আর কারচুপির মাধ্যমে কোনো সরকার যদি ক্ষমতায় আসে সেই সরকার বেশি দিন টিকবে না।

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের লোটে নিউইয়র্ক প্যালেসে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন মন্ত্রী। 

বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে পর্যবেক্ষক দল পাঠাচ্ছে না ইউরোপীয় ইউনিয়ন। প্রাক পর্যবেক্ষক দলের তৈরি করা প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, আগামী নির্বাচনের বিষয়ে স্পষ্ট... আগামী নির্বাচন ফ্রি এবং ফেয়ার করতে চায়। তবে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন একটা সরকার চাইলেই গ্যারান্টি দেওয়া যাবে না। শান্তিপূর্ণ নির্বাচনে সব দল ও মতের আন্তরিকতা প্রয়োজন, না হলে সম্ভব না। আই ক্যান নট গ্যারান্টি পিসফুল নির্বাচন। নির্বাচন শান্তিপূর্ণ করতে হলে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। পর্যবেক্ষক আসুক, দেখুক। তাদের ষ্বাগতম। 

মন্ত্রী আরও বলেন, অধিকাংশ দেশে কোনো ইলেকশন অবজারভার যায় না। যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে কোনো ইলেকশন অবজারভার যায় না, এমনকি ইংল্যান্ডেও যায় না। এমনকি প্রতিবেশী দেশ ভারত, সেখানেও কোনো ইলেকশন অবজারভার যায় না। হাঙ্গেরিসহ কয়েকটি দেশের প্রধানকে জিজ্ঞাসা করলাম সেই দেশেও নির্বাচন অবজারভার যায় না। আমাদের দৈন্য অবস্থা... কারণ আমরা অনেকদিন উপনিবেশ ছিলাম। আমরা বিদেশিদের সনদ পেতে চায় না। তবে আমরা এখন নিজেরাই আত্মবিশ্বাসী। আমরা আত্মমর্যাদাশীল দেশ, আমরা বিদেশিদের সনদ আর নেব না। আমরা এখন শক্ত অবস্থায়। অধিকাংশ নির্বাচন ভালো করছি, তারপরও আপনারা নির্বাচন অবজারভার নিয়ে চিৎকার করছেন। তারা আসুক, দেখুক। তবে আমি বলব নির্বাচন অবজারভার একটা রং পলিসি।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, যতদিন মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক সরকার না আসে ততোদিন সমস্যা সমাধান হবে না। এর জন্য গণতান্ত্রিক সরকার দরকার। 

বিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে আসবে না— এ বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, বিএনপির সৃষ্টি ক্যান্টনমেন্টে। তারা আজিজ মার্কা নির্বাচন চায়। তবে আমরা আশা করব সকল রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংশ নেবে।