• 21 Jul, 2024

হামাস সন্ত্রাসী সংগঠন নয়, স্বাধীনতাকামী

হামাস সন্ত্রাসী সংগঠন নয়, স্বাধীনতাকামী

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতার দাবিতে লড়াই করে আসা গাজা উপত্যকার ক্ষমতাসীনগোষ্ঠী হামাসকে পশ্চিমারা ‘সন্ত্রাসী’ সংগঠন হিসেবে দেখায় এর তীব্র সমালোচনা করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।

 তিনি বলেছেন, হামাস সন্ত্রাসী সংগঠন নয়, বরং তারা স্বাধীনতাকামী যোদ্ধা; যারা নিজেদের ভূমি রক্ষার জন্য লড়াই করছেন।

বুধবার আঙ্কারায় তুরস্কের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল একে পার্টির নেতাকর্মীদের এক সমাবেশে এই মন্তব্য করেছেন এরদোয়ান। গাজায় বেসামরিক নাগরিকদের ওপর ইসরায়েলের নির্বিচার হামলা ও হত্যাযজ্ঞের নিন্দাও জানিয়েছেন তিনি। এ সময় তার আসন্ন ইসরায়েল সফরের পরিকল্পনা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন এরদোয়ান।

আঙ্কারায় দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘ইসরায়েল হামাসকে পশ্চিমাদের সাথে তাল মিলিয়ে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে দেখতে পারে। পশ্চিমারা ইসরায়েলের কাছে অনেক ঋণী। কিন্তু তুরস্ক ইসরায়েলের কাছে কোনও কিছুর জন্যই ঋণী নয়।’

হামাসের যোদ্ধাদের প্রতি দাঁড়িয়ে সম্মান জানিয়ে তুরস্কের এই প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘হামাস কোনও সন্ত্রাসী সংগঠন নয়। এটা মুজাহিদীনের একটি সংগঠন, যারা নিজেদের ভূমিকে রক্ষা করছে।’

গাজায় ‘অমানবিক’ যুদ্ধের কারণে ইসরায়েল সফরের পরিকল্পনা বাতিল করছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। এরদোয়ান বলেন, আমাদের ইসরায়েল সফরে যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু সেটা বাতিল হয়ে গেছে, আমরা যাব না।

হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধের বিষয়ে আলোচনা করতে বর্তমানে কাতার সফরে রয়েছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাকান ফিদান। সেখানে তিনি গাজায় ইসরায়েলের চলমান হামলাকে মানবতার বিরোধী অপরাধ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। 

কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ বিন আব্দুলরহমান আল-থানিকে পাশে নিয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে হাকান ফিদান বলেন, ‘শিশু, রোগী এবং বয়স্ক মানুষসহ আমাদের ফিলিস্তিনি ভাইদের ওপর এমনকি স্কুল, হাসপাতাল ও মসজিদে হামলা চালানোর এই ঘটনা মানবতাবিরোধী অপরাধ।’

সূত্র: টাইমস অব ইসরায়েল, আলজাজিরা।

এসএস