• 19 May, 2024

আবারও কি একসঙ্গে দেখা যাবে কারিনা-শাহিদকে?

আবারও কি একসঙ্গে দেখা যাবে কারিনা-শাহিদকে?

বলিউডের প্রেমের ছবির তালিকায় উপরের দিকেই স্থান করে নিয়েছে জব উই মেট। সিনেমাটির মূখ্য ভূমিকায় ছিলেন কারিনা কাপুর খান ও শাহিদ কাপুর। অবশ্য কারিনা কাপুর তখনও কারিনা কাপুর খান হননি। সাইফ ঘরণী হওয়ার অনেক আগের কথা। ২০০৭ সালে মুক্তি পাওয়া সিনেমাটি বলিউড দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিল দ্রুতই। শাহিদ-কারিনার অনবদ্য অভিনয়ে মুগ্ধ হয়েছিলেন দর্শক।

এবার অনুরাগীদের জন্য সুখবর। আসতে চলেছে ‘জব উই মেট’ সিনেমার সিক্যুয়েল। ভারতের একাধিক জাতীয়স্তরের বিনোদন সংস্থা মারফত খবর, জব উই মেট-২ তৈরির প্রস্তুতি চলছে। এ খবর শুনতেই অনেকের মনে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে, তাহলে কি আবার একবার জুটি বাঁধবেন কারিনা-শাহিদ?


অষ্টবিনায়ক-এর স্বত্বাধিকারী রাজ মেহতা জব উই মেট-২ এর প্রযোজনা করবেন, গান্ধার ফিল্মস- এর ব্যানারের অধীনে। তেল শোধনাগারের ক্ষেত্রে দীর্ঘ ৩০ বছরের ইতিহাস রয়েছে গান্ধার গ্রুপের, ২০২১ সালে গান্ধার ফিল্মস অ্যান্ড স্টুডিও প্রাইভেট লিমিটেড প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বিনোদন শিল্পে পা রাখে তারা। খবরে জানা গেছে, প্রথম ছবির পরিচালক ইমতিয়াজ আলিই সিক্যুয়েলের পরিচালনা করবেন।

যদিও জব উই মেট নির্মাতাদের পক্ষ থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হয়নি এখনও। তবে জল্পনা অন্য জায়গায়। প্রাক্তন প্রেমিক-প্রেমিকা শাহিদ কাপুর ও কারিনা কাপুর খানই ফের মুখ্য চরিত্রে ফিরবেন কি না, এই প্রশ্ন অনেকের মনে। কারণ গীত ও আদিত্যর চরিত্রে তারা দু’জনই যে এত বছর ধরে দর্শকের মনে গেঁথে রয়েছেন!

২০০৭ সালে মুক্তি পায় জব উই মেট। তারপর কেটে গেছে ১৬টি বসন্ত। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে শাহিদ কাপুর বলেন, ‘ জব উই মেট-এর সিক্যুয়াল হবে কি না তা পুরোটাই নির্ভর করছে চিত্রনাট্যের গুণমানের ওপর। যদি এমন কোনও স্ক্রিপ্ট থেকে থাকে যার সিক্যুয়েল হওয়া উচিত এবং যদি আমার সেই চিত্রনাট্য পড়েই মনে হয় যে তা আরও বেশি দুর্দান্ত হবে, তাহলে সেই সিনেমা করবো। কিন্তু যদি আমার এমন মনে না হয় এবং প্রথম সিনেমার ব্র্যান্ড ভ্যালু ব্যবহার করে দ্বিতীয় সিনেমা করতে চাইলে সেখান থেকে পিছিয়ে আসতে পারি’। সেই সাক্ষাৎকারে ৪২ বছর বয়সী অভিনেতা প্রশংসা করেছিলেন জব উই মেট- এর সহ-অভিনেত্রী ও প্রাক্তন প্রেমিকা কারিনা কাপুরের। শাহিদ বলেন, ‘অন্য কোনো অভিনেত্রী গীতের চরিত্রকে কারিনার মতো করে ফুটিয়ে তুলতে পারতেন না’।