• 21 May, 2024

৭ কলেজের পরীক্ষা পেছানোর ঘোষণায় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

৭ কলেজের পরীক্ষা পেছানোর ঘোষণায় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) অধিভুক্ত সাত কলেজের স্নাতকের এক বিষয়ের চূড়ান্ত পরীক্ষা পেছানোর ঘোষণায় প্রতিবাদ জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (১১ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ঢাকা কলেজের মূল ঘটকের সামনে জড়ো হয়ে এ ব্যাপারে প্রতিবাদ জানান ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, ২০২২ সালের অনার্স প্রথম বর্ষের নিয়মিত, অনিয়মিত ও মানোন্নয়ন পরীক্ষার সময়সূচি হঠাৎ করেই পরিবর্তন করা হয়েছে। আগামীকালের পরীক্ষার তারিখ পাল্টে দীর্ঘ সময় পরে দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ অক্টোবর মাসের পরীক্ষা দুই মাস পিছিয়ে আগামী ডিসেম্বর মাসে দেওয়া হয়েছে। এটি সাধারণ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এক ধরনের প্রহসন। আমরা চাই এমন সিদ্ধান্ত থেকে প্রশাসন সরে আসুক।

তারা বলেন, এখন পরীক্ষা দেরিতে হলে পরবর্তী সময়ে ফল প্রকাশেও বিলম্ব হবে। তাই সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবি হলো, যেন বিলম্বিত তারিখ পাল্টে দ্রুতই কাছাকাছি সময়ে এই পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হয়। আমরা আশঙ্কা করছি যে, দেরিতে পরীক্ষা নেওয়ার কারণে পুনরায় সেশনজট শুরু হবে।

ঢাকা কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ডিসেম্বর মাসে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংসতা হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাই আমরা চাই যেন দ্রুততম সময়ের মধ্যে আমাদের পরীক্ষাসহ আনুষঙ্গিক বিষয়াদি শেষ করা হয়। কর্তৃপক্ষের হেলাফেলা কিংবা হঠকারী সিদ্ধান্তের ফলে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি তৈরি হলে সেটি আমরা মেনে নেব না। তাই সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবি— যেন এই তারিখ পরিবর্তন করে কাছাকাছি সময়ের মধ্যেই পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হয়। 

এর আগে, আজ (বুধবার) দুপুরে ঢাবির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের অফিস থেকে অনিবার্য কারণ দেখিয়ে ২০২২ সালের অনার্স প্রথম বর্ষের ১২ অক্টোবরের পরীক্ষা স্থগিত করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

ঢাবির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. বাহালুল হক চৌধুরীর সই করা ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২০২২ সালের অনার্স প্রথম বর্ষের নিয়মিত, অনিয়মিত ও মানোন্নয়ন পরীক্ষার সময়সূচিতে অনিবার্য কারণে পরিবর্তন করা হলো। পরিবর্তিত তারিখ অনুযায়ী বৃহস্পতিবারের (১২ অক্টোবর) পরীক্ষা আগামী ১১ ডিসেম্বর সকাল ৯টায় অনুষ্ঠিত হবে। তবে রুটিন অনুযায়ী বাকি পরীক্ষাগুলোর সময়সূচি ও অন্যান্য অংশ অপরিবর্তিত থাকবে বলেও জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সমিতির পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ১০-১২ অক্টোবর সারা দেশে একযোগে সর্বাত্মক কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। কর্মসূচি অনুযায়ী কর্মবিরতি পালন করছেন ঢাবি অধিভুক্ত ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি তিতুমীর কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, সরকারি বাঙলা কলেজের শিক্ষকরা। 

সে অনুযায়ী কর্মস্থলে উপস্থিত থেকে পাঠদান, পরীক্ষা গ্রহণ, সভায় অংশগ্রহণ ও দাপ্তরিক কাজ হতে বিরত রয়েছেন এসব কলেজে কর্মরত শিক্ষা ক্যাডারের কর্মকর্তারা। মূলত সে কারণেই ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজের পরীক্ষা পেছানো হয়েছে।