• 15 Jun, 2024

৪৪ বছরে পা দিয়েছেন ‘বাহুবলী’ খ্যাত প্রভাস

৪৪ বছরে পা দিয়েছেন ‘বাহুবলী’ খ্যাত প্রভাস

৪৪তম বছরে পা দিয়েছেন দক্ষিণী সিনেমার জনপ্রিয় নায়ক প্রভাস। ১৯৭৯ সালের ২৪ অক্টোবর চলচ্চিত্র প্রযোজক উপ্পলপতি সূর্য নারায়ণ রাজু এবং শিব কুমারির ঘরে জন্ম নেন এ অভিনেতা।

জন্মদিনে পরিবারের সদস্য, বন্ধু-স্বজনদের পাশাপাশি ভক্ত ও সহকর্মীরা তাকে শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানাচ্ছেন নানা মাধ্যমে। এ ভালোবাসা উপভোগ করছেন প্রভাস। 

২০০২ সালে জয়ন্ত সি পরাঞ্জির অ্যাকশন ফিল্ম ইএসওয়্যার-এ মুখ্যচরিত্রে অভিনয় দিয়ে বিনোদনজগতে এসেছিলেন প্রভাস। কিন্তু সেখানে তার পারফরম্যান্স আলাদা করে কোনো রকম দাগ তো কাটেনি।

তবে পরের ছবি থেকে কিছুটা হলেও বদলাতে থাকে পরিস্থিতি। ‘রাঘবেন্দ্র’ ছবিতে শ্রী রাঘবেন্দ্র স্বামীর চরিত্র রূপায়ণে মনপ্রাণ দিয়ে কাজ করেন প্রভাস।

মারকাটারি অ্যাকশন সিকোয়েন্স, সঙ্গে তার লম্বা, পেশিবহুল চেহারা--সব মিলিয়ে দর্শকের নজর কাড়ে। কিন্তু তিনি যে অভিনেতাও কম ভাল নন, সেটা বোঝানো তখনও বাকি ছিল।

২০০৪ সালে মুক্তি পায় ‘বর্ষম’। সেখানে অভিনয়ে সাবলীল, নাচেও স্বচ্ছন্দ প্রভাসকে দেখতে পান দর্শকরা। রোমান্টিক অ্যাকশন ফিল্ম ‘বর্ষম’ তুমুল হিট হয়েছিল।

গল্পটা এই পর্যন্ত শুনলে মনে হবে, মোটের ওপর মসৃণ সাফল্যের দলিল। তা নয়। কারণ, এর পর, দু-টি ছবি বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে। কিন্তু ব্যর্থতা মানে যে নতুন করে নিজেকে খুঁজে পাওয়া, সেটা আরও একবার দেখিয়ে দিলেন তেলুগু অভিনেতা। এবার এস এস রাজামৌলির সঙ্গে যুগলবন্দি করে অভিনয় করলেন 'ছত্রপতি' (২০০৫) ছবিতে। একই পরিচালকের সঙ্গে পরে 'বাহুবলী' ফ্রাঞ্চাইজি-তে কাজ করে কার্যত রেকর্ডভাঙা সাফল্য পান অভিনেতা। এবার প্রস্তুতি চলছে 'সালার' নিয়ে। ইতিমধ্যেই তার পোস্টার সাড়া জাগিয়েছে। বাকিটা কী হবে? বলবে সময়।