• 22 Apr, 2024

তামাক নিয়ন্ত্রণের নির্দেশিকার উপর এনজিওদের সক্ষমতা বৃদ্ধি কমর্শালা

তামাক নিয়ন্ত্রণের নির্দেশিকার উপর এনজিওদের সক্ষমতা বৃদ্ধি কমর্শালা

NILG-এর তামাক নিয়ন্ত্রণ নির্দেশিকা বাস্তবায়ন প্রাতিষ্ঠানিকীকরণ ও শক্তিশালী করা প্রকল্পের আয়োজনে স্থানীয় এনজিওগুলির জন্য 'তামাক নিয়ন্ত্রণের নির্দেশিকার সক্ষমতা বিল্ডিং' বিষয়ের উপর দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এনআইএলজি'র আয়োজনে এবং স্থানীয় সরকার বিভাগ ও Vital Strategies সহায়তায় শুক্রবার (২০ অক্টাবর) সকাল ৯টায় ঢাকার আগারগাঁও জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট (এনআইএলজি) এর সেমিনার কক্ষে এ কর্মশালায় অনুষ্ঠিত হয়। 

তামাকের ক্ষতিকর প্রভাব স্থানীয় ও বেশ্বিক প্রেক্ষাপট এর উপর প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনিস্টিটিউট (এনআইএলজি)'এর ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ইসরাত হোসেন খান। তিনি তার উপস্থাপনায় উল্লেখ করেন, দেশের টোটাল পপুলেশনের প্রায় অর্ধেক মানুষ টোব্যাকোর দ্বারা এ্যাফেক্টেট। তামাক থেকে প্রতিবছর রাজস্ব পায় ২২ হাজার ৮১০ কোটি টাকা অপর দিকে তামাক ব্যবহারে আর্থিক ক্ষতির হচ্ছে ৩০ হাজার ৫৬০ কোটি টাকা। সব মিলে প্রতি বছর দেশের ৮ হাজার কোটি ক্ষতি হচ্ছে।  পরোক্ষ ধুপপানে দেশে ১ কোটির বেশি শিকার হয় নারীরা, ঢাকা শহরে ৯৫% ভাগ শিশুর দেহে উচ্চমাত্রায় নিকোটিন পাওয়া গেছে, রেস্তোরাঁয় ৪৯.৭%, বাড়ীতে ৩৯%, কর্মক্ষেত্রে ৪২.৭% হাসপাতালে/ক্লিনিক ১২.৭% এবং পাবলিক পরিবহণ ৪৪%।