ঝিনাইদহে পৃথক দুর্ঘটনায় সড়কে ঝরল ২ প্রাণ

44

ঝিনাইদহে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন। বুধবার (০৯ নভেম্বর) সকালের দিকে শৈলকুপা ও হরিণাকুন্ডু উপজেলায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ঝিনাইদহ থেকে আলমসাধু নিয়ে হরিণাকুণ্ডু উপজেলার এজিবি নামে ইটভাটায় যাচ্ছিলেন বাপ্পি শেখ নামে এক চালক। পথে উপজেলার পারমথুরাপুর নামক স্থানে পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আলমসাধুটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত বাপ্পি শেখ (২৫) উপজেলার হাকিমপুর গ্রামের কুদ্দুস শেখের ছেলে। তিনি পেশায় আলমসাধু চালক।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নাসির উদ্দিন বলেন, হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

হরিণাকুণ্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সকালে দুর্ঘটনা ঘটেছে। সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে বাপ্পি মারা গেছেন। তাই বিষয়টি সদর থানা কর্তৃপক্ষ দেখবে। তবে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অপমৃত্যু মামলা দেওয়া হলে সেটি নেওয়া হবে।

এদিকে শৈলকুপা উপজেলার দুধসর নামক স্থানে ট্রাক-লরির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন একজন। এ সময় আরও দুইজন আহত হয়েছেন।

নিহত যুবক যশোরের জামাল হোসেন (৩৫)।

স্থানীয়রা জানায়, জামালপুর থেকে ট্রাকে করে নিজের ট্রাক্টর নিয়ে যশোর ফিরছিলেন জামাল হোসেন। এ সময় ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়া সড়কের শৈলকুপা উপজেলার দুধসর আবদুস সোবহান নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছালে মোংলা থেকে রূপপুরগামী লরির সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ট্রাকের সামনে বসে থাকা জামাল হোসেনসহ তিনজন আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক জামাল হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নাসির উদ্দিন বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় শৈলকুপায় ও হরিণাকুন্ডুতে আসা দুজনই হাসপাতালে পৌঁছানোর আগে মারা গেছেন।