কোনো আপোস নয়, হুঙ্কার ইমরান খানের

28

সরকারবিরোধী লং মার্চে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হলেও দাবি আদায়ে সরকারের সঙ্গে কোনো ধরনের আপোস করবেন না বলে জানিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সব দাবি রাজপথেই আদায়ের ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) এই প্রধান। সোমবার পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

ইসলামাবাদ অভিমুখে সরকারবিরোধী লং মার্চ নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সময় গত বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদে তাকে বহনকারী কনটেইনার লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে এক হামলাকারী। ওই ঘটনায় পায়ে গুলিবিদ্ধ হন ইমরান খান। এরপর থেকে লাহোরের শওকত খানম হাসপাতালে ভর্তি আছেন সাবেক ক্রিকেট তারকা থেকে রাজনীতিক বনে যাওয়া ইমরান।

সোমবার হাসপাতালে গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, ‘যেকোনো পরিস্থিতিতে আমার লং মার্চ লক্ষ্য অর্জন করবে।’ এরপর বুধবার থেকে আবারও লং মার্চ শুরু হবে বলে জানান তিনি।

তবে পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে হাঁটতে না পারার কারণে স্বশরীরে উপস্থিত হতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, পিটিআই সাধারণ সম্পাদক আসাদ ওমর এবং দলের চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ কোরেশি লং মার্চের নেতৃত্ব দেবেন।

এদিকে, সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলী জারদারির সঙ্গে কোনো আপোস বা সমঝোতা করবেন না জানিয়ে ইমরান খান বলেছেন, পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) প্রধান নেতা নওয়াজ শরিফ এবং পিপিপি কো-চেয়ারম্যান আসিফ আলী জারদারির সঙ্গে কোনো ধরনের আপোস করা সম্ভব না।

এছাড়া পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সঙ্গে কোনো ধরনের দ্বন্দ্বে জড়াতে চান না বলেও জানিয়েছেন ইমরান। তিনি বলেছেন, সশস্ত্র বাহিনীর যেসব সদস্য পাকিস্তানকে রক্ষায় সীমান্তে কাজ করছেন, তারা আমার ‘সন্তানের’ মতো।

সূত্র: জিও নিউজ।