স্থানীয় সরকার শক্তিশালীকরণ ও নারীর ক্ষমতায়ন এলজিএসপি’র অনন্য উদাহরণ

43

স্টাফ রিপোর্টার : দির্ঘদিন লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট (এলজিএসপি-৩) বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার কাঠামো সমূহ শক্তিশালী অধিকতর সক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে নারীর ক্ষমতায়ন, জনঅংশগ্রহণে প্রকল্প প্রনয়ণ, এমআইএস পদ্ধতিতে তথ্য সংরক্ষণ, জিপিআরএস পদ্ধতিতে প্রকল্প নির্ধারণ করতে ইউনিয়ন পরিষদ দক্ষতা অর্জন করেছে। এখন তারা এই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে রিসোর্স মোবিলাইজ করে ইউনিয়নবাসির সেবা প্রদানে চেষ্টা করতে পারবে। সুতরাং স্থানীয় সরকার কাঠামো শক্তিশালীকরণ ও নারীর ক্ষমতায়নে এলজিএসপি’র অনন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছে দেশে।

মঙ্গলবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে নড়াইল জেলা পর্যায়ে লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট (এলজিএসপি-৩) এর অগ্রগতি ও অর্জন অবহিতকরণ অনুষ্ঠিত কর্মশালায় এসব কথা বলা হয়।

কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন স্থানীয়র সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফখরুল হাসান।

এসময় আলোচনায় অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে গিয়ে ইউপি সচিবরা বলেন, মূলত: এই এলজিএসপি প্রকল্প নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে বাস্তবায়ন হয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। যার ফলে ইউপি সংরক্ষিত মহিলা সদস্যদের নেতৃত্বে স্থানীয় জনগণের অংশগ্রহণে প্রকল্প গ্রহণ করা। আর এই প্রকল্প জিপিআরএস পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়। যার ফলে কোন প্রকল্পই ওভারপ্যাপিং হয় না। গৃহিত প্রকল্প সমূহ হতে অগ্রাধিকারভিত্তিক বাস্তবায়ন করা হয়। লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট বাস্তবায়নের মধ্যেদিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের সার্বিক সক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শাশ্বতী শীল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপর রিয়াজুল ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারি কমিশনার মিজানুর রহমান, এলজিএসপি ফ্যাসিলেটর ফরজানা আক্তার, সাপ্তাহিক নড়াইলকণ্ঠের প্রকাশক ও সম্পাদক কাজী হাফিজুর রহমান, সাবেক জেলা পরিষদ’র সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা সাইফুর রহমান হিলু, অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রওশন আলী, ভদ্রবিলা ইউপি সদস্য সচিব বাবুল মজুমদার প্রমুখ।

এসময় ইউনিয়ন পরিষদরে চেয়ারম্যানবৃন্দ, ইউপি সচিব, এনজিও প্রতিনিধি, নারী প্রতিনিধি, সাংবাদিক, ইমাম, সুশিল সমাজের প্রতিনিধিসহ অপরাপর সেক্টররের অংশিজনেরা উপস্থিত ছিলেন।