নারকেলগাছে আটকে ছিল স্কুলছাত্রের মরদেহ

61

বরগুনার বামনায় নারকেল গাছ পরিষ্কার করতে গিয়ে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (০১ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার পোটকাখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত স্কুলছাত্রের নাম মো. মহারাজ (১৩)। সে একই এলাকার সুলতান মিয়ার ছেলে এবং ওই সারোয়ারজান সরকারি বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

স্থানীয়রা জানায়, স্কুলে পূজার ছুটি থাকায় সকাল ১০টার দিকে বাড়ির পাশে নিজেদের নারকেল গাছ পরিষ্কার করতে ওঠে মহারাজ। এই গাছের পাশ ঘেঁষে গেছে পল্লীবিদ্যুতের লাইন। নারকেল গাছ পরিষ্কার করতে করতে এক পর্যায়ে গাছের ডগা কাটলে তা গিয়ে পড়ে বিদ্যুতের তারে। এতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যায় ওই স্কুলছাত্র। এরপর তার মরদেহ দুই-আড়াই ঘণ্টা ধরে গাছেই আটকে ছিল। পরে বামনা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা গিয়ে তার মরদেহ নিচে নামিয়ে আনে।

ফায়ার সার্ভিসের বামনা স্টেশন অফিসার সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমরা সাড়ে ১০টার দিকে খবর পাই। নিশ্চিত হয়ে টিম নিয়ে ঘটনাস্থলে যাই। পরে বরগুনা থেকে সরঞ্জাম আসার পরে দুপুর পৌনে ১টার দিকে গাছ থেকে স্কুলছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করি।

বামনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বশিরুল আলম বলেন, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি, নারকেল গাছে মরদেহ আটকে আছে। ফায়ার সার্ভিসকে বিষয়টি জানালে তারা বরগুনা থেকে বড় সিঁড়ি এনে মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত স্কুলছাত্রের পরিবারের কোনো অভিযোগ নেই। তবে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।