রানি এলিজাবেথের চেয়েও অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার খরচ বেশি শিনজো আবের

23

‘রানির চেয়ে কীভাবে আবের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ব্যয় বেশি হতে পারে?’ জাপানের একটি সংবাদমাধ্যমে এমন খবরের শিরোনাম করা হয়েছে। যদিও রানির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার রাষ্ট্রীয় ব্যয়ের প্রকৃত পরিমাণ এখনও প্রকাশ করা হয়নি। তারপরও ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিররের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রানির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় ৮০ লাখ পাউন্ড বা ১৩০ কোটি ইয়েন ব্যয় হয়েছে। অন্যদিকে, জাপানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ব্যয় ১৬৬ কোটি ইয়েন নির্ধারণ করা হয়েছে।

শিনজো আবের রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আগামী মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হবে। আবের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার প্রকৃত ব্যয় অনেক বেশি বলে ইতোমধ্যে পূর্বাভাস করেছেন।

অনেকেই আবার প্রকৃত ব্যয় অনুমানের তুলনায় দ্বিগুণের বেশি হওয়ার উদাহরণ টেনে টোকিও অলিম্পিকের কথা স্মরণ করিয়ে দিচ্ছেন। যেখানে ব্যয় ছাড়িয়েছিল ১ হাজার ৩০০ কোটি ডলার।

তবে আয়োজনের দায়িত্বে থাকা কোম্পানির কারণে জাপান এবং যুক্তরাজ্যের দুটি রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার কারণে ব্যয়ের এমন আকাশ-পাতাল পার্থক্য কিনা সেই প্রশ্নও তুলেছেন কেউ কেউ।

আবের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আয়োজনের জন্য নিলামের ডাক দেওয়া হয়েছিল। সেই ডাকে একমাত্র নিলামকারী হিসেবে ১৭৬ মিলিয়ন ইয়েনে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার দায়িত্ব পায় মুরায়ামা নামের একটি ইভেন্ট কোম্পানি।

নিলামের তথ্য প্রকাশিত হওয়ার পরপরই অনেকেই এই কোম্পানি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। কারণ জীবিত থাকাকালীন এই কোম্পানির মাধ্যমে শিনজো আবে বার্ষিক ‘চেরি ব্লসম পার্টির’ আয়োজন করতেন; যা নিয়ে দেশটিতে সমালোচনার মুখোমুখিও হয়েছিলেন তিনি।

সম্প্রতি জাপানের সংবাদ সংস্থা কিয়োডোর এক জরিপে অংশ নেওয়া ৭০ শতাংশের বেশি মানুষ দেশটির সরকার আবের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ব্যয় অনেক বেশি করছে বলে মতামত দেন।

তবে আবের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার ব্যয়ের প্রায় অর্ধেকই নিরাপত্তা ব্যবস্থার পেছনে ব্যয় হবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। এছাড়া এক-তৃতীয়াংশ ব্যয় হবে বিদেশি অতিথিদের অভ্যর্থনায়।

আগামী মঙ্গলবার শিনজো আবের রাষ্ট্রীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার আগে দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদার সাথে দেখা করতে বিদেশি অতিথিরা জাপানে যাচ্ছেন। তিন দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানকে ‘অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কূটনীতি’ হিসেবে বলা হচ্ছে।

বিশ্বের ২১৭টি দেশের প্রায় ৭০০ অতিথি আবের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় অংশ নেবেন। অতিথিদের তালিকায় আছেন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস-প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্থনি আলবানিজ।

গত ৮ জুলাই জাপানের পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর নারায় এক জনসমাবেশে বক্তৃতা দেওয়ার সময় ঘাতকের গুলিতে প্রাণ হারান শিনজো আবে। দেশটির বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনায় ব্যাপক ঘাটতি ছিল।

সূত্র: বিবিসি।