আবারও সাকিবের ‘গোল্ডেন ডাক’, তবু জিতলো তার দল

13

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) ক্রিকেটে ব্যাট হাতে সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না সাকিব আল হাসানের। ব্যাট হাতে পরপর দুই ম্যাচে গোল্ডেন ডাক তথা প্রথম বলেই আউট হয়ে গেলেন এ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। তবে বল হাতে সপ্রতিভ এ বাঁহাতি স্পিনার।

শুক্রবার সেইন্ট লুসিয়া কিংসের বিপক্ষে ৪ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন সাকিব। পরে ব্যাটিংয়ে প্রথম বলে আউট হলেও রহমানউল্লাহ গুরবাজ ও শাই হোপের ঝড়ো ফিফটিতে ৬ উইকেটের দারুণ এক জয় পেয়েছে গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স।

নিজেদের ঘরের মাঠ প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে টস হেরে ফিল্ডিং করতে নেমেছিল গায়ানা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৪ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করায় সেইন্ট লুসিয়া। ক্যারিয়ারের চতুর্থ টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরিতে ৫৯ বলে ১০৩ রান করে সেইন্ট লুসিয়ার অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি।

এছাড়া নিরোশান ডিকভেলা ৩২ বলে ৩৬ ও শেষ দিকে ছোট ক্যামিওতে ৭ বলে ১৭ রান করে রস্টোন চেজ। গায়ানার পক্ষে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন সাকিব। আগের ম্যাচে জ্যামাইকা তালাওয়াজের বিপক্ষে সাকিবের শিকার ছিল একটি উইকেট।

পরে ১৯৫ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই ঝড় তোলেন গুরবাজ। তাকে দারুণ সঙ্গ দেন আরেক ওপেনার চন্দরপল হেমরাজ। যার সুবাদে পাওয়ার প্লে’র ছয় ওভারে ৭১ রান তুলে নেয় গায়ানা। অষ্টম ওভারে আউট হওয়ার আগে ২০ বলে ২৯ রান করে হেমরাজ।

পরের ওভারে সাজঘরে ফেরেন গুরবাজ। তার ব্যাট থেকে আসে সাত চার ও দুই ছয়ের মারে ২৬ বলে ৫২ রানের ইনিংস। গুরবাজ ফেরার পর চার নম্বরে নামেন সাকিব। কিন্তু মার্ক দেয়ালের প্রথম বলেই সরাসরি বোল্ড হয়ে সাজঘরের পথ ধরেন তিনি।

দুই ওভারে তিন উইকেট হারিয়ে খানিক বিপদে পড়ে যায় গায়ানা। তবে শিমরন হেটমায়ার ও শাই হোপের জুটিতে ভালোভাবেই ঘুরে দাঁড়ায় তারা। অধিনায়ক হেটমায়ারের ব্যাট থেকে আসে ২৮ বলে ৩৬ রান। তিনি আউট হওয়ার সময় বাকি ছিল ২৮ বলে ৪৭ রান।

যা তুলে নিতে সমস্যা হয়নি হোপের। ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা হোপ খেলেছেন দুই চার ও পাঁচ ছয়ের মারে ৩০ বলে ৫৯ রানের অপরাজিত ইনিংস। এ জয়ের আট ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে উঠেছে গায়ানা। শেষ দুই ম্যাচ জিতলে সেরা চারে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে তাদের।