তাইওয়ানে বড় ভূমিকম্প, আহত ৪

17

স্বায়ত্বশাসিত দ্বীপভূখণ্ড তাইওয়ানের দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় উপকূলীয় শহর তাইতুংয়ে বড় মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছে। রিখটার স্কেলে এই কম্পনের মাত্রা ছিল ৬ দশমিক ৯।

ভূমিকম্পে এ পর্যন্ত ৪ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া ভূমিকম্পের প্রভাবে পাথর ধসে তাইওয়ানের শিকে ও লুইশিশি পার্বত্য এলাকার একটি সড়ক বন্ধ হয় যায়। এত ওই সড়কে আটকা পড়েন ৬ শতাধিক মানুষ।

ইতোমধ্যে অবশ্য সড়কটির ওপর ধসে পড়া পাথর সরানোর কাজ শেষ হয়েছে।

শনিবার স্থানীয় সময় রাত ২টা ৪৪ মিনিটে এই ভূমিকম্প হয় বলে জানিয়েছে তাইওয়ানের আবহাওয়া দপ্তর এবং যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক গবেষণা সংস্থা ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে (ইএসজিএস)। ইউএসজিএসের তথ্য অনুযায়ী, ভূপৃষ্ঠের ১০ কিলোমিটার গভীরে ছিল ভূমিকম্পটির উৎপত্তিস্থল।

তাইওয়ানের আধাসরকারি বার্তাসংস্থা সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সির (সিএনএ) তথ্য অনুযায়ী, তাইওয়ানের সব এলাকায় অনুভূত হয়েছে এই কম্পন; সমস্ত ভবন কেঁপে উঠেছে এবং দ্বীপরাষ্ট্রের সমস্ত রেল লাইন এঁকেবেঁকে গেছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একাধিক ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, ভূমিকম্পের পরপরই বিভিন্ন আবাসিক ভবন থেকে মরিয়ে হয়ে রাস্তায় নেমে আসছেন লোকজন।

সিএনএ’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভূমিকম্পে তাইওয়ানের ইউলি শহরে একটি ভবন ধসে ২ জন আটকা পড়েছিলেন। তাদেরকে ধ্বংসস্তুপের ভেতর থেকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়েছে।

এছাড়া একটি সেতু ভেঙে পড়ায় তার ওপরে থাকা একটি গাড়ি পড়ে গিয়ে তিন জন আহত হয়েছেন ট্রেনের লাইন বেঁকে যাওয়ায় তাইওয়ানের পূর্বাঞ্চলীয় শহর ডংলিতে একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়েছে, এতে আহত হয়েছেন আরও ১ জন।

আহতদের সবাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

তাইওয়ানের এই ভূমিকম্পের পর সুনামি সতর্কতা জারি করেছিল ইএসজিএস এবং জাপানের আবহাওয়া দপ্তর, পরে তা সরিয়ে নেওয়া হয়।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ভূমিকম্পপ্রবণ টেকটোনিক প্লেট ‘রিং অব ফায়ার’র ওপর অবস্থান করায় ভূমিকম্প তাইওয়ানের একটি নিয়মিত প্রাকৃতিক দুর্যোগ। ১৯৯৯ সালে এই স্বায়ত্বশাসিত দ্বীপভূখণ্ডে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছিল, তাতে নিহত হয়েছিলেন ২ হাজার ৪০০ জনেরও বেশি মানুষ।

সূত্র : এএফপি, রয়টার্স, আল আরাবিয়া