বৃষ্টির অভাবে নড়াইলে পাট পঁচাতে পারছেন না চাষীরা

30

নড়াইলে বৃষ্টির অভাবে পাট পঁচাতে পারছেন না চাষীরা। বিভিন্ন পুকুর ও গর্তে পানি ভর্তি করে পাট জাগ দিলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অনেক কম। এদিকে বৃষ্টির ওপর নির্ভরশীল আমন চাষীরা বৃষ্টির আশায় বসে আছেন।

কৃষি বিভাগের সূত্র মতে এ বছর নড়াইল জেলায় পাটের চাষ হয়েছে ২৩হাজার ৩শ ৪০ হেক্টর। লক্ষ্যমাত্রা ছিলো ২২হাজার ৩শ ৩৫ হেক্টর। অর্থাৎ লক্ষমাত্রার চেয়েও ১ হাজার ৫ হেক্টর জমিতে অরিক্তি পাট চাষ হয়েছে।

অনাবৃষ্টির কারণে চাষীরা এবার সেচ দিয়ে পাট চাষ করেছে। কিন্তু বৃষ্টি না হওয়ায় এখন পাট জাগ দেওয়া নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। অনেকে নিরুপায় হয়ে মাছ চাষের পুকুরে পাট পচানোর চেষ্টা করছেন।

বিলে পানি না থাকায় অনেকেই ৮/১০ কিলোমিটার দূরে গিয়ে নদীতে পাট পঁচানোর চেষ্টা করছে। এতে খরচ বেড়ে যাওয়ায় পাটের মুল্য ৫ হাজার টাকা নির্ধারণের দাবি চাষীদের।

কৃষি বিভাগ বলছে পাটের দাম ভাল হওয়ায় চাষিরা পাটচাষে ঝুকে পড়েছে। দ্রুত বৃষ্টিপাত হলে কৃষকদের পাট পঁচানোর সমস্যা কেটে যাবে বলে জানান কৃষি বিভাগের এই কর্মকর্তা।

এদিকে বৃষ্টির পানির ওপর নির্ভর আমন চাষীরাও হতাশায় ভুগছেন। বৃষ্টি না হওয়ায় মাঠের পর মাঠ পড়ে আছে অনাবাদী অবস্থায়। অনেকেই আবার স্যালো মেশিন স্থাপন করে সেচ দিয়ে ধান রোপনের চেষ্টা করছেন।

পর্যাপ্ত বৃষ্টির জন্য আরো কিছু দিন অপেক্ষার কথা জানান, জেলা আবহাওয়া অফিস।