তেলের দাম বাড়ার সুযোগ নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা: বাণিজ্যমন্ত্রী

13

তেলের দাম বাড়ার কারণে ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

তিনি বলেন, ব্যবসায়ীরা সুযোগ যখন নেন সবাই একবারে লাফ দিয়ে নেন।

কিন্তু আমরা তো এসব একবারে শেষ করতে পারব না। তাদের সঙ্গে বসে সেটেল করতে হবে। আমাদের একটু সময় দিন। আমরা সবাই মিলে চেষ্টা করছি।
বুধবার (১৭ আগস্ট) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে টিসিবির এক কোটি পরিবারের মধ্যে ভর্তুকি মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

তেলের দাম বৃদ্ধিতে নিত্য প্রয়োজনীয় সব পণ্যের দাম বেড়েছে। বলা হচ্ছে এখানে সিন্ডিকেট করা হচ্ছে, এ বিষয়গুলো আপনারা মনিটরিং করছেন কিনা জানতে চাইলে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা সত্য কথাই বলেছেন। আমরা এ বিষয়গুলো দেখছি। তবে সবকিছু বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণ করে না। দাম যে পরিমাণ বাড়ার কথা তার থেকে অনেক বেশি সুযোগ নিয়েছে।

তিনি বলেন, আমি সচিবকে বলেছি যে যেই মন্ত্রণালয়ে আছেন সবাইকে চেষ্টা করতে হবে। ডলারের দাম হঠাৎ করে কত বেশি। খুব চেষ্টা করা হচ্ছে কীভাবে কী করা যায়। আমাদের কাছে হিসাব আছে। ধরেন, তেলের দাম বাড়ায় পরিবহন খরচের জন্য প্রতিকেজিতে ৫০ পয়সা করে বাড়তে পারে। সেখানে ব্যবসায়ীরা ৪ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়েছে। এখানে কোনো লজিক আছে? নাই।

মন্ত্রী বলেন, আমরা কষ্টে আছি স্বীকার করছি। আমাদের যেটা দেখা দরকার কষ্টটা লাঘব করার জন্য আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কী চেষ্টা করছেন।

দাম কবে নাগাদ কমে আসবে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, সেটা বলা যাবে না। তবে আমরা খুব আশাবাদী অক্টোবরের মধ্যে কিছুটা কমে আসবে। কতগুলো ফ্যাক্টর কাজ করে। আমি জানি না পুতিন সাহেব কবে যুদ্ধ বন্ধ করবেন। সেটাতো আমার হিসাবের মধ্যে নেই।