মাশরাফী’র উদ্যোগে নড়াইলে ৮৫২ জন ফিরে পেলো চোখের আলো!

20

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ‘অন্ধজনে দেহ আলো’ -এই ব্রত নিয়ে নড়াইল জেলাকে অন্ধমুক্ত করার লক্ষ্যে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা শিবিরের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের সফল অধিনায়ক ও নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার হাতে গড়া সংগঠন ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’।

এপর্যন্ত মাশরাফীর নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন ১২টি ‘বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা শিবির’ এর মাধ্যমে এ জেলার ৮৫২ জন বিনামূল্যে সানী অপারেশনের মাধ্যমে ফিরে পেয়েছে আলো এবং ২২৯৭ জন রোগিকে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা পেয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০৪ আগস্ট) শরীফ আব্দুল হাকিম ও নড়াইল এক্সপ্রেস হাসপাতাল ক্যাম্পাসে ১২তম ‘বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা শিবির’ পরিচালিত হয়। খুলনার বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. সেলিনা আক্তার রোগীদের চোখ পরীক্ষা করেন।

এ ক্যাম্পের মাধ্যমে মোট ৫৯৭জন রোগি দেখা হয়েছে। এরমধ্যে ৩১৩ ছিলো মহিলা রোগি, পুরুষ ২৮৪ জন এবং ৫২ জন রোগিকে সানী অপারেশনের জন্য খুলনা বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এছাড়া সংগঠনটির উদ্যোগে ১১টি ক্যাম্পের মাধ্যমে মোট ১৭০০’শ রোগিকে বিনামূল্যে সেবা প্রদান করেছে এবং ৮০০ রোগিকে বিনামূল্যে সানী অপারেশন করে।

নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের আয়োজনে ও খুলনা বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের সহযোগীতায় শরীফ আব্দুল হাকিম ও নড়াইল এক্সপ্রেস হাসপাতালে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত এ ক্যাম্প পরিচালিত হয়।

উল্লেখ্য, জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা রাজনীতিতে আসার আগে গড়ে তুলেছিলেন ‘নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন’ নামে একটি অরাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন। যার যাত্রাশুরু হয় ২০১৭ সালের ৪ সেপ্টেম্বর। শুরু থেকে সংগঠনটি স্বাস্থ্যসেক্টরকে অধিকতর গুরুত্ব দিয়ে কাজ করতে শুরু করে। ইতিমধ্যে এই সংগঠনটি ১২টি ‘বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা শিবির’ সহ মেডিকেল ক্যাম্প পরিচালনা করেছে।

এ বিষয়ে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মো. তরিকুল ইসলাম অনিক বলেন, প্রতিষ্ঠার পর থেকে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক কাজ করছে। এরই অংশ হিসেবে নড়াইল জেলাকে অন্ধমুক্ত করার লক্ষ্যে আমাদের এ আয়োজন। আমরা বিশ্বাস করি, বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসাসেবা অব্যাহত থাকলে একসময় নড়াইল জেলায় কোনো অন্ধ মানুষ থাকবে না।