ঢাবিতে শিক্ষার্থী নির্যাতনের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

13

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী মো. শিপন মিয়াকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের ঘটনায় তদন্ত কমিটি করেছে হল প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) দুপুরে  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হলের ভারপ্রাপ্ত প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. বেলাল হোসাইন।


তিনি বলেন, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য আমরা এরইমধ্যে আবাসিক শিক্ষক খালেদ মাহমুদকে প্রধান করে চার সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে দিয়েছি। ওনারা কাজ শুরু করেছেন। তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তদন্ত কমিটির বাকি তিন সদস্য হলেন- আবাসিক শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. মনিরুল ইসলাম, আজিজুর রহমান এবং সহকারী আবাসিক শিক্ষক শিবলী নোমান। তদন্ত কমিটিকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

গত রোববার (২৪ জুলাই) রাত ১১টার দিকে হলের ১৭৭ নং কক্ষে নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত ছাত্রলীগের তিন কর্মী ইয়াসির আরাফাত প্লাবন, ইয়াছিন আল শাহীন এবং আল ইমরান ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। তারা হল ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী ও হল ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর শিকদারের অনুসারী বলে জানা গেছে।


পরের দিন (২৫ জুলাই) সকালে এ ঘটনায় বিচার চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও ভারপ্রাপ্ত হল প্রভোস্টের নিকট লিখিত অভিযোগ দেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী। তারই ভিত্তিতে তদন্ত কমিটি গঠন করে হল প্রশাসন।