অন্টারিও পার্লামেন্টে বিরোধীদলীয় উপনেতা বাংলাদেশি ডলি বেগম

18

কানাডার বৃহত্তম প্রদেশ অন্টারিওর প্রভিন্সিয়াল পার্লামেন্টে বিরোধীদলীয় উপনেতা হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ডলি বেগম।

বুধবার এনডিপি দলের এবং অন্টারিওর সংসদে বিরোধীদলের উপনেতা হিসেবে ডলি বেগমকে নিয়োগ দেওয়া হয়।

ডলি বেগম কানাডায় প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত যিনি নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং সংসদে বিরোধীদলের উপনেতা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

গত জুন মাসে প্রভিন্সিয়াল নির্বাচনে স্কারবোরো সাউথওয়েস্ট থেকে দ্বিতীয়বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।

ওই নির্বাচনের পর দলের নেতা এন্ড্রিয়া হারওয়াথ পদত্যাগের ঘোষণা দিলে এই পদে ডলি বেগমের নাম আলোচনায় আসে।

মূলধারার পত্রিকা এবং টেলিভিশনগুলো ডলি বেগমকে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে উপস্থাপন করে।

তবে সিপি২৪কে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, এই মুহূর্তে তার নির্বাচনী এলাকার নানা সমস্যা এবং স্কারবোরোর বাসিন্দাদের প্রয়োজনকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছেন।

পরে তার দল এনডিপি তাকে দলের উপনেতা এবং প্রভিন্সিয়াল পার্লামেন্টে বিরোধীদলীয় উপনেতা হিসেবে নিয়োগ দেয়।

উপনেতা হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় ডলি বেগম বলেন, কুইন্সপার্কে (প্রভিন্সিয়াল পার্লামেন্টে) অন্টারিওর সব নাগরিকদের বক্তব্য কার্যকরভাবে তুলে ধরা এবং সেগুলো শুনতে সরকারকে বাধ্য করতে তিনি সক্রিয় থাকবেন।

অন্টারিওর পার্লামেন্টের বিরোধীদলীয় উপনেতা হিসেবে ডলি বেগমের দায়িত্বপ্রাপ্তিকে বাংলাদেশি কানাডিয়ানদের জন্য উল্লেখযোগ্য একটি অর্জন হিসেবে অভিহিত করেছেন দেশটির বাংলা পত্রিকা ‘নতুনদেশ’র প্রধান সম্পাদক শ্ওগাত আলী সাগর।

তিনি বলেন, প্রধান একটি রাজনৈতিক দলের দ্বিতীয় প্রধান পদ এবং সংসদের গুরুত্বপূর্ণ পদে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত একজন এমপির দায়িত্ব পালন কানাডায় বাংলাদেশি কমিউনিটির গুরুত্ব আরও বাড়িয়ে দেবে।