নড়াইলে হত্যা মামলায় একই পরিবারের ৭ জনের যাবজ্জীবন

7

নড়াইল: নড়াইলের কালিয়ার কলাবাড়িয়া গ্রামের রাজু শেখ হত্যা মামলায় ৭ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায় আরও এক বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) সাড়ে ৪টার দিকে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. কেরামত আলী এই আদেশ দেন।

পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ইমদাদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- জেলার কালিয়া উপজেলার নড়াগাতি থানার কলাবাড়িয়া চরকান্দিপাড়া দাউদ শেখের তিন ছেলে শামীম শেখ, দুলু মিয়া শেখ, মোসলেম শেখের ছেলে দাউদ শেখ, মৃত কোবাদ শেখের ছেলে কোটি শেখ, মৃত ইনজাহের শেখ ছেলে নাসিম শেখ, মৃত আদি শেখর সিকান্দার শেখ।

রায় ঘোষণার সময় আদালতে পাঁচ আসামি উপস্থিত থাকলেও আসামি শামীম শেখ ও দুল মিয়া শেখ পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণ জানা যায়, ২০০৪ সালের এপ্রিল মাসের ৩০ তারিখ বিকেল ৫টায় নড়াগাতি থানার কলাবাড়িয়া চর কাদিপাড়ায় রাজু শেখ ঢাকা থেকে এসে চাচা ও তার বাবার সঙ্গে দেখা করে ফিরে যাচ্ছিল। পথে কলাবাড়িয়া হাটের কেরামতের দোকানের কাছে পৌঁছালে আসামিরা তাকে পরিকল্পিতভাবে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে।

পরে স্বজনরা তাঁকে উদ্ধার করে কালিয়া হাসপাতালে ভর্তি করে। ওইদিন রাত আনুমানিক ৯টার দিকে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এ ঘটনায় রাজুর ভাই রফিক শেখ বাদী হয় মোট আট জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

সাক্ষীদের সাক্ষ্য শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. কেরামত আলী এ রায় দেন। আদেশ দেওয়া সময় মামলার পাঁচ আসামি উপস্থিত ছিলেন। বাকি দুইজন শামীম শেখ ও দুল শেখ পলাতক রয়েছেন। এছাড়া মামলা চলাকালীন সময় ১ নম্বর আসামি মোসলেম শেখ মারা যাওয়ায় আদালত তাকে অব্যাহতি দিয়েছে।