ইংরেজি বোঝে নড়াইলের গরু ‘সুলতান’, দাবি বিক্রেতার

14

‘সুলতান’, আফতাব নগর হাটের সবচেয়ে বড় গরু। গরুটির ওজন কত— জানতে চাইলে মালিক পলাশ আহমেদ বাপ্পি সুলতানকে উদ্দেশ্য করে বললেন, ‘সুলতান গেট আপ’। সঙ্গে সঙ্গে গরুটি উঠে দাঁড়াল। কিছুক্ষণ পর পশুটি ছোটাছুটির চেষ্টা করলে বাপ্পি গায়ে হাত দিয়ে বললেন, ‘রিল্যাক্স সুলতান’। পরপর দুবার বলার পর শান্ত হয়ে গেল গরুটি। বাপ্পির দাবি, ‘আমার এই গরু ইংরেজি বোঝে’।

‘ইংরেজি কথা বোঝে এমন গরু হাটে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না’— দাবি গরুর মালিক বাপ্পির। পাশাপাশি হাটের বড় গরুগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। বাপ্পি জানান, গরুটির ওজন ৪৫ মণ (১৮০০ কেজি)। দাম চাওয়া হচ্ছে ১৮ লাখ টাকা।

তিনি বলেন, এই গরুর মূল মালিক আমার আত্মীয়। খামারে গরুটির পরিচর্যা থেকে শুরু করে সবকিছু আমিই করেছি। আমিই হাটে এনেছি, সেই অর্থে গরুটির বর্তমান মালিক আমি।

পলাশ আহমেদ বাপ্পি বলেন, আমরা নড়াইল থেকে এসেছি। নিজস্ব খামারে অত্যন্ত যত্নের সঙ্গে গরুটি বড় করেছি। সে ইংরেজি কথা বোঝে। আমরা খামারে টুকটাক ইংরেজি বলি তার সাথে। সেখান থেকে শিখে গেছে।

গরুটির দাম কত চাচ্ছেন— জানতে চাইলে বাপ্পি বলেন, আমাদের চাওয়া ১৮ লাখ টাকা। অনেকেই দরদাম করেছেন। ১১ লাখ টাকা পর্যন্ত দাম উঠেছে। আরেকটু বেশি হলে আমরা ছেড়ে দেব।

ঈদের আগের দিন শনিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত গরুটি বিক্রি হয়নি। শেষ পর্যন্ত বিক্রি না হলে সুলতানকে নিয়ে নড়াইল ফিরে যাবেন। বাপ্পি বলেন, বর্তমানে বাজার একটু ডাউন। আমাদের চাওয়া দাম ছিল ১৮ লাখ। তবে, কিছুটা কম হলেও এ হাটেই বিক্রি করে যেতে চাই। আশা করছি, রাতের মধ্যে আরও ক্রেতা আসবেন। কাঙ্ক্ষিত দাম পাব।