শরীয়তপুরের ৩০ গ্রামে ঈদুল আজহা পালিত

10

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে আজ (৯ জুলাই) পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন শরীয়তপুরের ৩০ গ্রামের মানুষ। এরা সবাই শরীয়তপুরের সুরেশ্বর দরবার শরীফের অনুসারী।

শনিবার (৯ জুলাই) সকাল ৯.৪০ মিনিটে সুরেশ্বর দরবার শরীফের মাঠে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। দরবার শরীফের গদিনশীন পীর ছৈয়দ শাহ নুরে কামাল নুরীর ভাই ছৈয়দ শাহ নুরে বেলাল নুরী নামাজে ইমামতি করেন। নামাজ শেষে করা হয় বিশেষ দোয়া-মোনাজাত।

ঈদের নামাজ শেষে পীর ছৈয়দ শাহ নুরে কামালের নুরীর সঙ্গে কথা হয় ঢাকা পোস্টের। তিনি বলেন, জিলহজের ৯ তারিখ হজ্জ ও ১০ জিলহজ ঈদুল আজহা। গতকাল হজ পালিত হয়েছে। তাই আজ ঈদুল আজহা পালন করব। নবী বলেছেন হজের পরের দিনই ঈদ হবে। তাই আমরা এই দিনই ঈদ করব। আমরা আরবি তারিখ ও মধ্য প্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে রোজা ও ঈদ পালন করি। 

তিনি আরও বলেন, আজ সকাল ৯.৪০ মিনিটে ঈদুল আজহার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। শরীয়তপুর ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থানে থাকা দরবার শরীফের মুরিদরা আজ ঈদের নামাজ আদায় করেছেন। নামাজ শেষ বিশ্ব উম্মাহর জন্য দোয়া করা হয়।

জানা গেছে, দরবার শরীফের অনুসারীরা প্রায় ১০০ বছরের বেশি সময় ধরে মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে মিল রেখে রোজা পালন ও ঈদ উদযাপন করে আসছেন।