ধর্ম শিক্ষা বাদ দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই : এনসিটিবি

6

নতুন কারিকুলামে ধর্ম শিক্ষাকে বাদ দেওয়া হয়েছে বলে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চাউর উঠেছে। তবে, এ তথ্য সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট বলে জানিয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এনসিটিবি জানায়, এনসিটিবি বা সরকারের ধর্ম শিক্ষা বাদ দেওয়ার কোনো সুযোগ বা পরিকল্পনা নেই। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের শিক্ষা নিয়ে বিভ্রান্তি জাতির জন্য কল্যাণকর নয়। আমরা শিক্ষাক্রম নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানো থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানাচ্ছি।


এতে বলা হয়, শিক্ষাক্রমে দশম শ্রেণি পর্যন্ত ১০টি বিষয় বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সেগুলো হলো- বাংলা, ইংরেজি, গণিত, বিজ্ঞান, ডিজিটাল প্রযুক্তি, স্বাস্থ্য সুরক্ষা, ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান, ধর্মশিক্ষা, জীবন ও জীবিকা এবং শিল্প ও সংস্কৃতি। ধর্মশিক্ষা বিষয়ে পৃথক চারটি পাঠ্যপুস্তক রাখা হয়েছে। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্য হিন্দুধর্ম শিক্ষা, বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের বৌদ্ধধর্ম শিক্ষা, খ্রিষ্ট ধর্মাবলম্বীদের জন্য খ্রিষ্ট ধর্ম শিক্ষা এবং ইসলাম ধর্মাবলম্বী শিক্ষার্থীদের জন্য ইসলাম শিক্ষা নামে পাঠ্যপুস্তক রয়েছে।

এতে আরও বলা হয়েছে, ইসলাম শিক্ষা স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি ও ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের শিক্ষকেরা প্রণয়ন করেছেন। শিক্ষাক্রমে ধর্মশিক্ষাকে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে ধর্মীয় আচার, আচরণ ও মূল্যবোধ চর্চায় গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।