ইউক্রেনে ৩ মার্কিন যোদ্ধা নিখোঁজ, রাশিয়ার হাতে আটক?

3

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে গিয়ে ইউক্রেনে তিন জন মার্কিন যোদ্ধা নিখোঁজ হয়েছেন। তাদের মধ্যে অন্তত দুইজন রাশিয়ার সেনাদের হাতে আটক হয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। শুক্রবার (১৭ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনে তিনজন আমেরিকান যোদ্ধা নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র অবগত রয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর। এমনকি নিখোঁজ মার্কিন যোদ্ধাদের মধ্যে দু’জনকে বন্দি করা হয়েছে বলেও আশঙ্কা দেশটির।


অবশ্য ইউক্রেনের পক্ষে লড়াই করতে দেশটিতে যাওয়া মার্কিন দুই সামরিক প্রবীণকে চলতি সপ্তাহে বন্দি করা হয়েছে বলে বেশ কিছু সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। পরে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর জানায়, ‘অতিরিক্ত আরও একজন আমেরিকানের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি কোথায় অবস্থান করছেন তা অজানা।’

গত সপ্তাহে ইউক্রেনের পক্ষে যুদ্ধে অংশ নেওয়ায় তিন বিদেশি বন্দিকে মৃত্যুদণ্ডের রায় দেওয়া হয়। ওই তিন বিদেশি বন্দির দুই জন ব্রিটিশ এবং একজন মরক্কোর নাগরিক। ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দোনেতস্কের রুশ-সমর্থিত বিচ্ছিন্নতাবাদীদের একটি আদালত ফায়ারিং স্কোয়াডের মাধ্যমে তাদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আদেশ দেয়।

বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউস বলেছে, ইউক্রেনে নিখোঁজ বা বন্দি আমেরিকানদের তথ্য বা সন্ধানের বিষয়ে ‘আরও জানতে কঠোর পরিশ্রম করা হচ্ছে’। সাবেক মার্কিন ও ফরাসি সেনাদের একটি দল বুধবার টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় জানায়, তাদের সাথে রুশ সেনাদের বিরুদ্ধ লড়াইরত দুই আমেরিকানকে এক সপ্তাহ আগে বন্দি করা হয়েছে।

মার্কিন গণমাধ্যমের তথ্য অনুসারে, রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ইউক্রেনীয় স্বেচ্ছাসেবক ইউনিটে যোগ দিতে ২৭ বছর বয়সী অ্যান্ডি তাই এনগক হুইন এবং ৩৯ বছর বয়সী আলেকজান্ডার ড্রুক যুক্তরাষ্ট্রের আলাবামা থেকে যাত্রা করেছিলেন।


আলাবামার কংগ্রেসম্যান রবার্ট অ্যাডেরহোল্ট গত বুধবার একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছেন। সেখানে তিনি বলেছেন, সাবেক মার্কিন মেরিন সেনা অ্যান্ডি তাই এনগক হুইন ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর হয়ে রাশিয়ার বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধে অংশ নিতে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে সেখানে (ইউক্রেন) গিয়েছেন।

ক্রেমলিন অবশ্য বলছে, ইউক্রেনে কোনো মার্কিন যোদ্ধাকে আটক করা হয়েছে কি না সে সম্পর্কে তারা অবগত নয়। এছাড়া রাশিয়া ইউক্রেনের সমর্থনে যুদ্ধরত সকল বিদেশিকে ভাড়াটে বলে মনে করে এবং এই কারণে তারা জেনেভা কনভেনশনের অধীনে যোদ্ধা হিসাবে সুরক্ষা পাবে না।

বৃহস্পতিবার বিবিসি নিউজকে দেওয়া বিরল এক সাক্ষাৎকারে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, ‘আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী, ভাড়াটেরা যোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃত নয়।’