কুসিক নির্বাচনে বৃষ্টির হানা, ভোগান্তিতে ভোটাররা

9

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সকাল ৯টায় সকল কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। তবে হঠাৎ বৃষ্টি হওয়ায় ভোগান্তি বেড়েছে ভোটারদের।

জানা গেছে, সকাল ৯টায় কুমিল্লা সরকারি সিটি কলেজ অ্যান্ড স্কুল ভোটকেন্দ্রে ভোটারের সারি মোটামুটি দীর্ঘ ছিল। এ সময় হঠাৎ বৃষ্টি শুরু হয়। সঙ্গে সঙ্গে ভোটাররা কেন্দ্রের মধ্যে ঢুকে পড়েন। অনেকে আবার আশ্রয় নেন স্কুলের অভিভাবক সেডে।


জাঙ্গালিয়া উন্নয়ন বোর্ড উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, বৃষ্টির কারণে মাঠে পানি জমেছে। এজন্য মাঠে আড়াআড়িভাবে অবস্থান নিয়েছেন ভোটাররা। শাহেদ নামের একজন ভোটার বলেন, ভোট দিতে এসে বেকায়দায় পড়েছি। বৃষ্টিতে ভিজে গেছি।

এ কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার মোহাম্মদ এনামুল হক  বলেন, ভোটের পরিস্থিতি অনেক ভালো। তবে বৃষ্টির কারণে ভোটার সংখ্যা কমে গেছে।

শাকতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়েও একই চিত্র দেখা যায়। বৃষ্টির কারণে মাঠে পানি জমে গেছে। এতে করে ভোগান্তিতে পড়েছেন ভোটাররা।


শাহিনা নামের একজন ভোটার ঢাকা পোস্টকে বলেন, কেন্দ্রে আসার পথেই বৃষ্টি নামল। মাঠেও পানি জমে গেছে। সেজন্য ঠিকমতো দাঁড়াতেও পারছি না।

কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার রাসেল আহমেদ  বলেন, বৃষ্টির কারণে ভোটার কমে গেছে, অনেকেই আসতে পারছেন না।

প্রসঙ্গত, নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত আরফানুল হক রিফাত, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. রাশেদুল ইসলাম, স্বতন্ত্র হিসেবে কামরুল আহসান বাবুল, মো. মনিরুল হক সাক্কু (বিএনপি নেতা ও দুবারের মেয়র) ও মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন।

এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর মিলে ১৪০ প্রার্থী আছেন ভোটের মাঠে। নির্বাচনে ৫ নম্বর ও ১০ নম্বর ওয়ার্ডে দুজন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ভোটগ্রহণ হচ্ছে সম্পূর্ণ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে। ভোটগ্রহণ সকাল ৮টায় শুরু হয়ে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে।

কুসিকের ২৭টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার রয়েছেন ২ লাখ ২৯ হাজার ৯২০জন। তাদের মধ্যে ১ লাখ ১৭ হাজার ৯২ জন নারী ভোটার ও পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১২ হাজার ৮২৬ জন। এছাড়া তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন দুজন।

ওয়ার্ডগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভোটার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে, ১৬ হাজার ৪৭৪ জন। সবচেয়ে কম ভোটার ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে, ৩ হাজার ৮৯৪ জন।