এইচপি’র আরুবা’র সঙ্গে আইভ্যালু’র চুক্তি

4

ভারতের প্রিমিয়াম প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আইভ্যালু ইনফোসল্যুশনস সম্প্রতি আমেরিকান হিউলেট-প্যাকার্ড (এইচপি) এন্টারপ্রাইজ কোম্পানি পরিচালিত আরুবা’র সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে। এই চুক্তির অধীনে আইভ্যালুকে বাংলাদেশ ও নেপালে পণ্য ও পরিষেবা বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে আরুবা নেটওয়ার্কিং।

আরুবা ২০০২ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নিরাপদ অত্যাধুনিক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও মেশিন-লার্নিং ভিত্তিক নেটওয়ার্কিং সল্যুশনস দিয়ে আসছে।


আইভ্যালু ইনফোসল্যুশনসের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রমেশ উমাশঙ্কর জানান, ‘বাংলাদেশ ও নেপালের দ্রুত বর্ধমান তথ্যপ্রযুক্তি বাজার নিয়ে একত্রে কাজ করার জন্য আইভ্যালু ও আরুবা উভয়ের জন্য এটি একটি মোক্ষম সময়। বাংলাদেশের বর্তমান তথ্যপ্রযুক্তি বাজার প্রায় ০.৯-১.১ বিলিয়ন ডলার, যা ২০২৫ সাল নাগাদ ৪.৬-৪.৮ বিলিয়ন ডলারে গিয়ে দাঁড়াবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য তথ্যপ্রযুক্তির ব্যাপক ব্যবহার বাংলাদেশে একটি সম্ভাবনাময় বাজার তৈরি করেছে। আরুবা’র অত্যাধুনিক নেটওয়ার্কিং সল্যুশনস ও আইভ্যালুর অংশীদার ভিত্তিক ব্যবসায়িক কার্যক্রম, দক্ষিণ এশিয়ার বাজারে নতুন ব্যবসায়িক অঞ্চলের সৃষ্টি করতে পারে।’

বিভিন্ন ক্যাম্পাস, শাখা, তথ্যকেন্দ্র ও দূরবর্তী কর্ম পরিবেশে গ্রাহকদের নিরাপদ সংযোগ প্রদান ও আর্থিক প্রয়োজনীয়তা মেটাতে আরুবা ক্লাউড ভিত্তিক বিভিন্ন পরিষেবা ও সল্যুশনস সরবরাহ করে। আরুবা’র কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ভিত্তিক মেশিন লার্নিং (এমএল) সহজ, দ্রুত এবং আরও স্বয়ংক্রিয় নেটওয়ার্ক সরবরাহ করে যা তথ্য বিশ্লেষণের মাধ্যমে ব্যবসায়িক উন্নতিতে সাহায্য করে।

আইভ্যালু’র বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার হোসাইনুল গাফফার জানান, ‘অত্যাধুনিক ক্লাউড নেটওয়ার্কিং ব্যয় ব্যবস্থাপনা, দ্রুততা, স্থিতিস্থাপকতা ও উদ্ভাবনের মাধ্যমে ব্যবসায়িক উন্নয়নে অবদান অব্যাহত রেখেছে। যেহেতু আমরা ডিজিটাল রূপান্তরকে সর্বোচ্চ পরিসরে গ্রহণ করতে দেখেছি, এই রুপান্তর নিরাপত্তার চ্যালেঞ্জগুলোকে আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ করে তুলেছে। আরুবা বিভিন্ন উদ্যোগের জন্য বিল্ট-ইন সিকিউরিটি সল্যুশনস প্রদান করে যার ভিত গড়ে উঠেছে জিরো ট্রাস্ট ও এসএএসই ফ্রেমওয়ার্কের উপর।’

গ্রাহক জীবন চক্র এবং পণ্য জীবন চক্র কাঠামো চর্চা করে আইভ্যালু সর্বদা ডিজিটাল সম্পদ সুরক্ষা, অপ্টিমাইজেশান এবং ট্রান্সফরমেশনের বিভিন্ন দিককে অগ্রাধিকার দিয়েছে। শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হিসাবে আইভ্যালু সমন্বিত সেবা প্রদানের মাধ্যমে উদ্ভাবনকে উত্সাহিত করে যা নানা ধরনের ব্যবসায়িক উদ্যোগগুলোর জন্য তথ্য, নেটওয়ার্ক এবং অ্যাপ্লিকেশন (ডিএনএ) পরিচালনাকে শক্তিশালী করে। আইভ্যালু সংস্থাগুলোকে তাদের বিদ্যমান আইটি পরিকাঠামোকে স্মার্টভাবে, দক্ষতার সঙ্গে এবং কার্যকরভাবে দেখতে এবং পুনরায় বিবেচনা করতে সহায়তা করে। সঠিক অংশীদারকে নিয়ে ৬ হাজারের বেশি গ্রাহকদের বিশেষ এবং বিশ্বস্ত সমাধান দিয়ে তাদের আস্থা বাড়াতে একাধিক মহাদেশে প্রায় ১৩টি অঞ্চলে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে আইভ্যালু। যার ফলে আইভ্যালু এখন ভারতের দ্রুততম বর্ধনশীল প্রিমিয়াম প্রযুক্তি সক্ষমকারী।

হিউলেট প্যাকার্ড এন্টারপ্রাইজ কোম্পানি আরুবার প্রবৃদ্ধি, সম্ভাবনাময় বাজার ও তাইওয়ানের ডিরেক্টর ও জেনারেল ম্যানেজার ম্যাজিক সু জানান, ‘আইভ্যালু আরুবা’র জন্য একটি সম্প্রসারিত বাজার ও সুযোগ নিয়ে এসেছে, যা আমাদের পণ্যগুলো গ্রাহকদের কাছে সহজে পৌঁছাতে সাহায্য করবে। এশিয়া আইভ্যালু’র সঙ্গে এই নতুন সম্পর্ক আমাদের কোম্পানি হিসেবে প্রবৃদ্ধির জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে, কেননা এর মাধ্যমে আমরা এমন এক বাজারে প্রবেশ করতে যাচ্ছি যেখানে আমাদের সেবার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।’