নারায়ণগঞ্জে স্বামী-স্ত্রী হত্যার দায়ে ৬ জনের ফাঁসির আদেশ

15

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর স্বামী-স্ত্রীকে হত্যার দায়ে ছয়জনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। সোমবার (০৬ জুন) দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালতের পাবলিক প্রসিকউিটর (পিপি) অ্যাডভোকেট রকিবউদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রায় ঘোষণার সময় ছয় আসামির মধ্যে তিনজন উপস্থিত ছিলেন।


দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সুমন, লোকমান, শফিক, সুমন, আরিফ ও মো. জামাল। তাদের মধ্যে সুমন, লোকমান ও শফিক পলাতক রয়েছেন। তবে উপস্থিত তিন আসামি হত্যাকাণ্ডে সম্পৃক্ততার বিষয়ে আদালতে স্বীকারক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছনি। আদালত যুক্তিতর্ক শেষে তাদের ফাঁসির আদেশ দেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান জানান, ২০০৯ সালের ১১ আগস্ট রাতে রাস্তা থেকে স্বামীসহ স্ত্রীকে তুলে নিয়ে স্বামীকে বেঁধে তার সামনেই স্ত্রীকে দলবদ্ধভাবে ধর্ষণ করেন। এরপর তাদের দুইজনকে হত্যা করে পাশের একটি ডোবাতে ফেলে পালিয়ে যায় আসামিরা। ঘটনার পর ১৬ আগস্ট ডোবা থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় গৃবধূর বাবা বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল ছয়জনের ফাঁসির আদেশ দেন।