নড়াইল পৌর মেয়রের নানা দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে বিক্ষোভ

2

নড়াইল পৌরসভার মেয়র আঞ্জুমান আরার বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
নড়াইল পৌরসভার সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে গতকাল মঙ্গলবার (১০ মে) বিকেলে এসব কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। নড়াইলের সুলতান মঞ্চ এলাকা থেকে বিক্ষোভ শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বঙ্গবন্ধু চত্বরে এসে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

যুবলীগ নেতা ফয়সাল সাদীর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিঙ্গাশোলপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান উজ্জল শেখ, এনামুল হক, শরিফুল ইসলাম বাপ্পি, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মিঠুন বিশ্বাস রাজু, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক আল-আমিন মোল্যা, সন্দিপ মজুমদার, সজল আহম্মেদ শ্রাবণ, সাজ্জাদ হোসেন ববিসহ অনেকে।
বক্তারা, নড়াইল পৌরসভার মেয়র আঞ্জুমান আরার বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলে তার পদত্যাগ দাবি করেন। তারা বলেন, পৌর এলাকার ইজিবাইক থেকে আদায়কৃত টাকার বেশির ভাগই মেয়র আত্মসাত করেন। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীর নামে ভুয়া ভাউচার দেখিয়ে সেই টাকা আত্মসাত করেছেন। এ সময় কাগজপত্র ও প্লাকার্ড দেখিয়ে পৌর মেয়রের বিভিন্ন দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরেন বিক্ষোভকারীরা। এ ব্যাপারে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।
এ বিষয়ে নড়াইল পৌর মেয়র আঞ্জুমান আরা সাংবাদিকদের বলেন, কোনো ধরণের অর্থ আত্মসাতের প্রশ্নই ওঠে না। আমার ওপর সন্ত্রাসী হামলা আড়াল করতে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ ছড়াচ্ছে তারা।
এদিকে, গত ২৬ এপ্রিল দুপুরে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিলয় রায় বাঁধন, নড়াইল পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি উচ্ছ্বাস আলম ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাওন পৌর কার্যালয়ে মেয়রকে গালিগালাজসহ চাঁদা দাবির অভিযোগে তাদের নামে মামলা হয়েছে। ঘটনার পরেরদিন মেয়র বাদী হয়ে ওই তিনজনের নামে সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। তবে এখনো পর্যন্ত কোনো আসামিকে গ্রেফতার করেনি পুলিশ।

আসামিদের গ্রেফতার দাবিতে মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে শহরের চৌরাস্তা থেকে শুরু হয়ে আদালত চত্বর পর্যন্ত বিশাল এলাকাজুড়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। নড়াইল পৌরবাসীসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের উদ্যোগে প্রায় দুইঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে হাজারো মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় বক্তব্য রাখেন নড়াইল পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আঞ্জুমান আরা, প্যানেল মেয়র কাজী জহিরুল হক, রেজাউল বিশ^াস, কাউন্সিলর শরফুল আলম লিটু, বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই বিশ্বাস, ওয়ার্কার্স পার্টি নড়াইল জেলা শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা মশিয়ার রহমান বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক বাবুল কুমার সাহা, সদস্য হাফিজ খান মিলন, বিপ্লব বিশ^াস বিলো, নড়াইল পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মলয় কুমার কুন্ডু, সহ-সভাপতি মেশকাতুল ওয়াজিন লিটু, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান, জেলা মৎস্যজীবী লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম, নারীনেত্রী রওশন আরা কবির লিলি, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমত আরা, শাহাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জিয়া, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রকিবুজ্জামান পলাশসহ অনেকে।
বক্তারা আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার দাবি করেন। এছাড়া সন্ত্রাসী কার্যকলাপের নিন্দা জানান।

এ ব্যাপারে নড়াইল সদর থানার ওসি শওকত কবির বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।