‘অশনি’র বৃষ্টিতে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার আক্ষেপ

1

শ্রীলঙ্কান দুই ব্যাটসম্যান আসিথা ফার্নান্দো আর কুশাল মেন্ডিস আবার নতুন করে ড্রেসআপ শুরু করেছেন, ম্যাচ রেফারির খেলা শুরুর বার্তার অপেক্ষা মাত্র। ঠিক সে মুহূর্তেই আবার ব্যস্ততা শুরু মাঠকর্মীদের। চিৎকার চলছে, চলছে পিচ কাভার দিয়ে উইকেট ঢাকার কাজ। সেই চিৎকার শুনে লঙ্কান কয়েকজন ক্রিকেটার ড্রেসিংরুম থেকে বাইরে বের হয়ে এলেন, বৃষ্টির তীব্রতা দেখে অভিব্যক্তিতে আক্ষেপ ঝরল তাদের।

মূলত ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেটে। এর ফলে শুরু হয়েছে বৃষ্টি। যার কারণে শেষপর্যন্ত পরিত্যক্ত হয়ে যায় বিসিবি একাদশ আর শ্রীলঙ্কার মধ্যকার দুই দিনের একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনের খেলা। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় বিকেএসপির ৩ নম্বর মাঠে খেলাটি শুরু হয়। ১০টা ৪০ মিনিটে বন্ধ হয় খেলা। খেলা বন্ধ হওয়ার আগে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ১৪ রানে ১ উইকেট। স্বাগতিকদের হয়ে উইকেটটি পান তরুণ পেসার মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ।

ম্যাচ শুরুর ৮.২ ওভার খেলা হওয়ার পর শুরু হয় বৃষ্টি। সেই বৃষ্টি প্রথম সেশনের বিরতির পর থামলেও মাঠ প্রস্তুতের কাজ শুরু করলে আবার বৃষ্টি নামে। এরপর আর বৃষ্টি না থাকলে দুপুর ২.২৫টায় প্রথম দিনের খেলা পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন ম্যাচ অফিশিয়ালরা।

খেলা পরিত্যক্ত হওয়ায় আক্ষেপ ঝরল সফরকারী শ্রীলঙ্কা দলের হেড কোচ ক্রিস সিলভারউডের কণ্ঠে। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে গত ৮ মে বাংলাদেশে এসেছে লঙ্কানরা। এখানে এসেছে তাদের প্রস্তুতি বলতে দুই দিনের এই প্রস্তুতি ম্যাচ। যার প্রথম দিন ভেসে গেল বৃষ্টিতে। এদিন অন্তত ২০ ওভার হলেও ব্যাটিং করতে চেয়েছিল তারা।

লঙ্কানদের মতো আক্ষেপ বিসিবি একাদশের কোচ মিজানুর রহমান বাবুলেরও। তরুণ ক্রিকেটাদের সমন্বয়ে তৈরি বিসিবি দলটির খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স পরখ করতে চেয়েছিলেন তিনি। প্রথম দিন ভেসে যাওয়ায় কপাল পুড়ল ব্যাটসম্যানদের। আগামীকাল বুধবার শেষদিন শ্রীলঙ্কা দল চাইবে নিজেদের ব্যাটিং বিভাগ দেখে নিতে, তাতে সুযোগ হারাবেন স্বাগতিক ব্যাটসম্যানরা।