ঈদ আনন্দে ঢাকা ছাড়লেন মুমিনুল-মুশফিকরা

27

‘কোথায় আর করবো? বাড়িতেই ঈদ করবো। পরিবারের সঙ্গে ঈদ করার আনন্দটা অন্যরকম।’- বলছিলেন জাতীয় দলের অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে অধিকাংশ সময়ই ঈদের আনন্দ সেভাবে উপভোগ করতে পারেন না ক্রিকেটাররা। বেশিরভাগ সময় ঈদের মধ্যে পড়ে আন্তর্জাতিক সিরিজ। অনেক সময় ঈদে ছুটি মিললেও সেটি পর্যাপ্ত হয় না, সময় স্বল্পতায় ফেরা নয় না নিজ এলাকায়, পরিবারের কাছে।

এবার ঈদের পরই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের প্রস্তুতি। তবে ক্যাম্পে যোগ দেওয়ার আগে মিলেছে কয়েকদিনের ছুটি। জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল) শেষ করেই ছুটেছেন নিজ নিজ জেলায়। এমন সুযোগ যে সহসা আসে না, এতে ঈদের আনন্দ যেন দ্বিগুণ হয়েছে তাদের।

শ্রীলঙ্কা সিরিজের টেস্ট দলের সদস্য নুরুল হাসান সোহান ৩০ এপ্রিল লিগ শিরোপা হাতে তুলে সেদিন রাতেই ধরেছেন বাড়ির পথ। পরিবার নিয়ে ছুটেছেন রাজধানীর কোলাহল থেকে বেশ খানিকটা দূরে।

টেস্ট দলের অধিনায়ক মুমিনুল হক গত রোববার কক্সবাজারে নিজ বাড়িতে গেছেন ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে। অভিজ্ঞ ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম বাবা-মার সঙ্গে ঈদ কাটাতে গিয়েছেন নিজ জেলা বগুড়ায়। অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানেরও নিজ জেলা মাগুরায় ঈদ করার কথা আছে।

যদিও খুব বেশিদিনের ছুটি পাননি তারা। আগামী ৮ মে শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য রিপোর্টিং। ঢাকা থেকে রওয়ানা করতে হবে প্রথম টেস্টের ভেন্যু চট্টগ্রামে। পরদিন থেকে অনুশীলন শুরু। সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু আগামী ১৫ মে, চট্টগ্রামে। আর দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ২৩ মে শুরু ঢাকায়।