বিবিয়ানার আরও একটি গ্যাস কূপ চালু

35

হবিগঞ্জের বিবিয়ানা গ্যাস ফিল্ডে আরও ১টি কূপ চালু করা হয়েছে। এ নিয়ে বন্ধ হওয়া ৬টি কূপের মধ্যে ৫টি কূপের গ্যাস উৎপাদন অব্যাহত রয়েছে। বৃহস্পতিবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শেভরন বাংলাদেশের মুখপাত্র শেখ জাহিদুর রহমান।

তিনি বলেন, আজ সকাল থেকে ৫ম কূপটি চালু করা হয়েছে। ৬ নং কূপটি চালুর জন্য প্রকৌশলীরা কাজ করছে। আশা করি আগামী সপ্তাহে ৬ নং কূপটিও চালুর সম্ভাবনা রয়েছে।

গত রোববার সকালে হঠাৎ হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় বিবিয়ানা গ্যাসক্ষেত্র থেকে গ্যাসের সঙ্গে বালু উঠে আসে। এ জন্য জরুরি ভিত্তিতে দুটি প্রসেস ট্রেন ও ছয়টি কূপের উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়া হয়।

বিবিয়ানা বর্তমানে দেশের সবচেয়ে বড় গ্যাস উৎপাদন ক্ষেত্র। হঠাৎ উৎপাদন বন্ধ হওয়ায় রোববার দুপুরের পর থেকে ধীরে ধীরে গ্যাসের সরবরাহ কমতে থাকে। ফলে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় রান্না করতে না পেরে ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ।

এরপর সোমবার একটি, মঙ্গলবার সকালে দুটি এবং বুধবার আরও একটি কূপ চালু করা হয়েছে। এ নিয়ে বর্তমানে পাঁচটি কূপ সচল রয়েছে। সচল হওয়া কূপ থেকে গ্যাস উৎপাদন অব্যাহত রয়েছে।

তিনি আরও জানান, অবশিষ্ট একটি কূপের কার্যক্রম ফিরিয়ে আনার জন্য প্রকৌশলীরা কাজ করছেন। আশাকরি আগামী সপ্তাহে শেষ কূপটি চালু হবে। চালু হলে শেভরনের ওয়েবসাইটে আমরা জানিয়ে দেব।

সূত্রে জানা গেছে, দেশে দিনে ৩৭০ কোটি ঘনফুট গ্যাসের চাহিদা থাকলেও মোট গ্যাস সরবরাহ করা হয় ২৭৯ কোটি ঘনফুটের মতো। এর মধ্যে বিবিয়ানা থেকে সরবরাহ করা হয় ১১৫ কোটি ঘনফুট।

রোববার দুপুরের পর থেকে বিবিয়ানায় উৎপাদন প্রায় অর্ধেক কমে যায়। এতে বাসার চুলায়, শিল্প কারখানায় ও বিদ্যুৎকেন্দ্রে সরবরাহ কমতে থাকে। তবে বিদ্যুৎ উৎপাদন স্বাভাবিক রাখতে চেষ্টা করে যাচ্ছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি)।