বেরোবি শিক্ষার্থীর ওপর হামলার ঘটনায় মামলা

2

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষার্থী মেজবাউল সরকার জয়ের ওপর হামলার ঘটনায় তাজহাট থানায় মামলা হয়েছে। শনিবার (০২ এপ্রিল) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বেরোবি পুলিশ ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইজার আলী।

তিনি জানান, শুক্রবার তাজহাট থানায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী মেসবাউল সরকার জয় বাদী হয়ে মামলা করেছেন।


মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২৯ মার্চ বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তঃবিভাগ ভলিবল টুর্নামেন্ট চলছিল। পূর্ব পরিকল্পনা অনুসারে বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থী সুব্রত ঘোষ , বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী রুবেল হোসেন রাজ, অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশনস সিস্টেমস বিভাগের শিক্ষার্থী ফজলে রাব্বী, আকাশ আহমেদ উজ্জ্বল, ফাইন্যান্স ও ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষার্থী রিফাত হোসেনসহ অজ্ঞাত ৭/৮ জন ইতিহাস ও প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের শিক্ষার্থী মেজবাউল সরকার জয়ের ওপর অতর্কিত হামলা করে। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ও প্রশাসনের সহায়তায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

কিন্তু সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মেজবাউল সরকার জয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার থেকে মুখতার ইলাহী আবাসিক হলের দিকে যাওয়ার পথে বঙ্গবন্ধু আবাসিক হলের কাছে পৌঁছালে আবারও তারা হামলা করে। এ সময় তারা রড, লাঠি, হাতুড়ি দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করে ও গলা টিপে ধরে। এতে জয় রক্তাক্ত ও অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সহায়তায় তাকে রংপুর মেজিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মামলা তদন্ত কর্মকর্তা এসআই ইজার আলী জানান, মেজবাউল জয়ের পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা হয়েছে। বিধি মোতাবেক মামলার তদন্ত করা হবে। এছাড়া এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকেও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।