এর মধ্যেও খেলছে সাকিব, এটা বিরাট ব্যাপার: পাপন

11

হ্যাঁ, না আবার হ্যাঁ করে শেষ পর্যন্ত আর দেশে ফিরে আসেননি সাকিব আল হাসান। মা, তিন সন্তান আর শাশুড়ি অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে। স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির ছাড়া সবাই চিকিৎসাধীন।

এমন পরিস্থিতিতে সাকিব দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দেশে ফিরে পরিবারের পাশে দাঁড়াবেন, এমনটাই ভাবা হচ্ছিল। শোনাও গিয়েছিল সাকিব গতকাল সোমবার বাংলাদেশ সময় রাতেই ফিরে আসছেন।

কিন্তু শেষ মুহূর্তে সাকিব নিজেই সিদ্ধান্ত পাল্টেছেন। দেশে না ফিরে এসে দক্ষিণ আফ্রিকায় থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি এবং আগামীকাল ২৩ মার্চ শেষ ম্যাচ খেলবেন ‘চ্যাম্পিয়ন অলরাউন্ডার’।

আপনজনের অসুস্থতায় তাদের পাশে না থেকে দেশ ও জাতীর জন্য সাকিবের এই ত্যাগের প্রশংসা সবার মুখে মুখে। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও সাকিবের এ ত্যাগি মানসিকতাকে অনেক বড় ব্যাপার বলে অভিহিত করেছেন।

আজ দুপুরে শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে আলাপে অনেক কথার ভিড়ে সাকিব প্রসঙ্গে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, সাকিব তাকে প্রথম ওয়ানডের পরই জানিয়েছিলেন যে, তার পরিবারের সদস্যরা অসুস্থ এবং তখন তাকে দেশে ফেরার ব্যাপারে পূর্ণ স্বাধীনতাও দেয়া হয়েছিল।

পাপন বলেন, ‘সাকিব আমাকে প্রথম ওয়ানডের পরই বলেছিল ওর পরিবারের সবাই অসুস্থ। আমি তাকে বলেছি ও আসতে পারে। পরিবার সবসময়ই গুরুত্বপূর্ণ। তাদের জন্য অবশ্যই যে কোনো সময়ই চলে আসতে পারে। ও বলেছিল দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলে আসবে। এরপর বলল আমি এখন আসছি। ওর টিকিটও বুক হয়ে গিয়েছিল। এরপরে কাল বলল তৃতীয় ম্যাচ শেষে আসব। আমাদের তরফ থেকে পুরো গ্রিন সিগন্যাল দেওয়া আছে, যেহেতু ফ্যামিলি ইমার্জেন্সি।’

বিসিবি প্রধান যোগ করেন যে, ‘সাকিব ইচ্ছে করলে যে কোন সময় আসতে পারে।’ তার শেষ কথা, ‘সাকিব যে এর ভেতরেও খেলছে, সেটা অবশ্যই আমাদের জন্য বিরাট ব্যাপার। ও অনেক বড় স্যাক্রিফাইস করছে।’