নিত্যপণ্যের দাম না কমলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি জাপা মহাসচিবের

45

নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে না এলে, দুর্নীতি, চাঁদাবাজি ও অর্থ পাচার বন্ধ করা না গেলে দুর্বার আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপ) মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর বিজয়নগরে জাপার মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

এই মুহূর্তে বাংলাদেশ এক কঠিন সময় অতিবাহিত করছে উল্লেখ করে চুন্নু বলেন, দেশে দ্রব্যমূল্য লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। সংসার চালাতে মানুষ হিমশিম খাচ্ছে। বিশেষ করে করোনাকালে যারা কর্মহীন হয়ে পড়েছেন তাদের সবার কর্মসংস্থান হয়নি। সবমিলিয়ে দেশে বেকারের সংখ্যা অন্তত পাঁচ কোটি। এমন বাস্তবতায় যেভাবে দ্রব্যমূল্য বাড়ছে তাতে মনে হয় দেশের মানুষের প্রতি সরকারের কোনো দরদ নেই। সরকার মানুষের কষ্ট বোঝে না, মানুষের মনের ভাষা বোঝে না।

তিনি বলেন, সাধারণ মানুষের অভিযোগ, যারা সরকারি দল করে তারাই শুধু ভালো আছে। দেশে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি আর দলবাজি করে একটি শ্রেণি ধনী থেকে আরও ধনী হচ্ছে। আর দেশের বেশিরভাগ মানুষ দিনদিন আরো গরীব হচ্ছে। মানুষের আয় নেই, কিন্তু ব্যয় বেড়েছে কয়েক গুণ।

মুজিবুল হক চুন্নু আরও বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ যখন রাষ্ট্রক্ষমতা ছেড়ে দেন তখন প্রতি কেজি চালের দাম ছিল ৮ থেকে ১০ টাকা। এখন গেলো ৩১ বছরে প্রতি কেজি চালের দাম বেড়ে বর্তমানে ৬০ থেকে ৮০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। এরশাদ সরকারের সময় যে সয়াবিন তেল ২০ থেকে ২৫ টাকা লিটার বিক্রি হয়েছে এখন তা ১৮০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে। আবার পেট্রলের দাম ছিল ৭ থেকে ১০ টাকা লিটার। এখন ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে প্রতি লিটার পেট্রল।

এভাবে নিত্যপণ্যের দাম বাড়লে মানুষের জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠবে। নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধি আর পানি, গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হবে গণবিরোধী সিদ্ধান্ত। এদেশের মানুষ এমন গণবিরোধী সিদ্ধান্ত মেনে নেবে না, যোগ করেন চুন্নু।

জাতীয় পার্টি এমন বাস্তবতায় ঘরে বসে থাকবে না জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা মানুষের সব অধিকার সুরক্ষিত করতেই রাজনীতি করছি। আমরা মাঠে আছি, মাঠে থাকবো। গণমানুষের স্বার্থ রক্ষার আন্দোলনে আমরা কখনো আপস করবো না।

জাপার এ নেতা আরও বলেন, দেশের মানুষ ভালো নেই। রাজধানীর অলিগলিতে টিসিবির গাড়ির পেছনে লাইন দেখলেই বোঝা যায় কতটা দুঃসহ জীবন যাপন করছে দেশের মানুষ। তিনি বলেন, আমরা মানুষের সঙ্গে ছিলাম, আছি। মানুষের অধিকার আদায়ের সংগ্রামে কখনোই পিছপা হবো না।